হাটে গিয়ে ধান কিনলেন কাশিয়ানীর ইউএনও

  কাশিয়ানী (গোপালগঞ্জ) প্রতিনিধি ২৩ মে ২০১৯, ১৪:৫৬ | অনলাইন সংস্করণ

হাটে গিয়ে ধান কিনলেন কাশিয়ানীর ইউএনও
বৃহস্পতিবার হাটে গিয়ে ধান কিনলেন কাশিয়ানী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এএসএম মাঈন উদ্দিন। ছবি: যুগান্তর

ধানের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করতে হাটে গিয়ে সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে ধান কিনেছেন গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এএসএম মাঈন উদ্দিন।

বৃহস্পতিবার বেলায় ১১টার দিকে উপজেলার বেথুড়ী ইউনিয়নের রামদিয়া হাটে গিয়ে তিনি ধান কেনেন।

সরকার নির্ধারিত মূল্যে ধান বিক্রি করতে পেরে এ সময় সন্তোষ প্রকাশ করেন কৃষকেরা।

উপজেলা খাদ্য অফিসসূত্রে জানা গেছে, কাশিয়ানী উপজেলা থেকে এ বছর ৩৭৯ টন ধান ক্রয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। যার কেজিপ্রতি মূল্য ২৬ টাকা দরে কৃষকদের দেয়া হবে। আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত ধান সংগ্রহ অভিযান চলবে।

কৃষক সাহিদ মোল্যা বলেন, ধানের দাম নিয়ে হতাশায় ভুগছিলাম। কিন্তু সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে ধান কেনায় আমি ধানের ন্যায্যমূল্য পেয়েছি। এভাবে প্রতি বছর কৃষকের কাছ থেকে ধান কিনলে আমরা উপকৃত হব।’

ইউএনও এএসএম মাঈন উদ্দিন বলেন, ‘কঠোর পরিশ্রম করে ফসল ফলানোর পরও ন্যায্যদাম পান না কৃষকরা। এবার ধান সংগ্রহ কোনো মধ্যস্বত্বভোগী যাতে সুযোগ নিতে না পারে এবং কৃষক যাতে ধানের ন্যায্যামূল্য পায় সে জন্য সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে ধান ক্রয় কর্মসূচি হাতে নেয়া হয়েছে।

ধানের কেজিপ্রতি সরকার নির্ধারিত দাম ২৬ টাকা কৃষক যেন পায় সেটি নিশ্চিত এ উদ্যোগে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা মো. হানিফ, রামদিয়া খাদ্যগুদাম কর্মকর্তা রিজাউল করীম, ভাটিয়াপাড়া খাদ্যগুদাম কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন, কাশিয়ানী প্রেসক্লাবের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. ফায়েকুজ্জামান, সাধারণ সম্পাদক নিজামুল আলম মোরাদ।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×