পৌনে ২ কেজি স্বর্ণের চালানসহ নারী আটক

প্রকাশ : ২৩ মে ২০১৯, ১৭:২৫ | অনলাইন সংস্করণ

  জীবননগর (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি

উদ্ধার হওয়া স্বর্ণের চালান। ছবি: যুগান্তর

চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে ভারতে পাচাররত পৌনে ২ কেজি ওজনের স্বর্ণের বারসহ এক নারী পাচারকারীকে আটক করেছে বিজিবি।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার শাখারিয় পিচমোড় থেকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উথলী বিশেষ ক্যাম্পের বিজিবি সদস্যরা অভিযান চালিয়ে এ স্বর্ণ উদ্ধার করে।

বিজিবি সূত্র জানায়, ঝিনাইদহের খালিশপুরস্থ-৫৮ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধীন জীবননগর উপজেলার উথলী বিশেষ ক্যাম্পের সদস্যরা উপজেলার সীমান্ত ইউনিয়নের শাখারিয় পিচমোড়ে অভিযান চালান।

বেলা সাড়ে ১১টার দিকে গয়েশপুর গ্রামের মসজিদপাড়ার আব্দুর রশিদের স্ত্রী মাবিয়া (৪১) খাতুনকে বিজিবি সদস্যরা আটক করে। এ সময় তার দেহ তল্লাশি করে ৩টি পুটলা উদ্ধার করে বিজিবি।

উদ্ধারকৃত পুটলা থেকে ১০টি স্বর্ণের বার ও ১১টি স্বর্ণের টুকরা উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত স্বর্ণের ওজন ১ কেজি ৭৪০ গ্রাম। যার আনুমানিক বাজার মূল্য প্রায় ৬৬ লাখ ৩৯ হাজার ৬৪৩ টাকা।

বিজিবির জিজ্ঞাসাবাদে আটক নারী মাবিয়া জানান, তিনি ৫০০ টাকা মজুরিতে এ স্বর্ণ বহন করছিলেন। উপজেলা শহরের আঁশতলাপাড়ার গিয়াসউদ্দিনের ছেলে মিলন তার কাছে এ স্বর্ণের চালান দেয়। স্বর্ণ বহন করে মাবিয়া গয়েশপুর গ্রামের বিশারত আলীর ছেলে বড় মিয়ার হাতে তুলে দিতেন। এরপর হাত বদল হয়ে চলে যেত ভারতে।
এ স্বর্ণের প্রকৃত মালিক সীমান্ত ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য গয়েশপুর গ্রামের ইসরাফিল হোসেন ওরফে পকু মেম্বার বলে বিজিবির কাছে স্বীকার করেন মাবিয়া।

এর আগেও মাবিয়া একই মালিকের স্বর্ণের চালান তিন দফায় পাচার করেছেন বলে বিজিবিকে জানিয়েছেন।

৫৮ বিজিবির পরিচালক লে. কর্নেল তাজুল ইসলাম বৃহস্পতিবার বিকালে ব্যাটালিয়নের এক প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।