জামালপুরে জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে ৩১ সাংবাদিকের জিডি

প্রকাশ : ০২ জুন ২০১৯, ১৪:৫১ | অনলাইন সংস্করণ

  জামালপুর প্রতিনিধি

জামালপুরে ৩১ সাংবাদিকের জিডি। ছবি: যুগান্তর

জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে জামালপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি হাফিজ রায়হান সাদা ও সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমানসহ ৩১ সাংবাদিক থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন। 

শনিবার রাত সাড়ে ১০টায় প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক, অনলাইন ও স্থানীয় পত্রিকার ৩১ সাংবাদিক সদর থানায় উপস্থিত হয়ে এসব জিডি করেন।

জামালপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি হাফিজ রায়হান সাদা জানান, পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে (কালের কণ্ঠের) সাংবাদিক মোস্তফা মনজুর ওপর গত ২৮ মে সদর সাব-রেজিস্ট্রার কার্যালয় চত্বরে হামলার ঘটনা ঘটে। 

এ ঘটনায় আহত সাংবাদিক মোস্তফা মনজু বাদী হয়ে ওই দিনই সদর থানায় মামলা করেন। মামলায় আসামি করা হয় সাব-রেজিস্ট্রার অফিসের ভেন্ডার ও জামালপুর পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হাসানুজ্জামান খান রুনুসহ ৯ জনকে। 

ঘটনার প্রতিবাদে ও হামলাকারীদের শাস্তির দাবিতে সাংবাদিকরা আন্দোলন করে আসছেন। 

৩০ মে আসামিরা আদালত থেকে জামিন নেন। জামিন পাবার পর আদালত প্রাঙ্গনে মামলার বাদীসহ উপস্থিত অন্যান্য সাংবাদিকদের প্রাণনাশের হুমকি দেন। হুমকি দেন বিভিন্ন মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর। আসামিদের হুমকিতে জামালপুরে কর্মরত সাংবাদিকরা নিরাপত্তার অভাবে চরম আতঙ্কে রয়েছেন।  

আতঙ্কিত সাংবাদিকরা থানায় জিডি করেছেন। আসামিদের গ্রেফতার ও সাংবাদিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবি করেছেন প্রেসক্লাবের সভাপতি হাফিজ রায়হান সাদার।

সাংবাদিকদের অভিযোগ, হামলাকারীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পর গ্রেফতারের দাবিতে থানায় মামলা, জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার বরাবর স্মারকলিপি দেয়া হয়েছে। তার পরও রহস্যজনক কারণে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। আসামিরা পুলিশ সুপারের কার্যালয় ও থানার সামনে দিয়ে প্রকাশ্য মহড়া দিয়ে আদালতে যায় এবং জামিন নেন।    

এদিকে সাংবাদিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন জামালপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমান। 

জামালপুর সদর থানার ওসি মো. সালেমুজ্জামান জানান, সাংবাদিক মোস্তফা মনজুর ওপর হামলা মামলার আসামিরা জামিনে মুক্তি পেয়েছে। জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে ৩১ জন সাংবাদিক শনিবার রাতে থানায় জিডি করেছে। 

সাংবাদিকদের নিরাপত্তায় আইনগত সব সহযোগিতা করা হবে। তদন্ত সাপেক্ষে হুমকিকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।