চলন্ত বাস থেকে ফেলে যাত্রী হত্যায় চালক গ্রেফতার
jugantor
চলন্ত বাস থেকে ফেলে যাত্রী হত্যায় চালক গ্রেফতার

  গাজীপুর প্রতিনিধি  

১০ জুন ২০১৯, ২২:০৪:২৪  |  অনলাইন সংস্করণ

‘আলম এশিয়া’ বাসের চালক রোকনউদ্দিন

বাস ভাড়া নিয়ে বাকবিতণ্ডার জেরে গাজীপুরে চলন্ত বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে এক যাত্রীকে হত্যার ঘটনায় ‘আলম এশিয়া’ বাসের চালক রোকনউদ্দিনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার বিকালে ময়মনসিংহের ধোবাউড়া থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

জয়দেবপুর থানার ওসি মো. আসাদুজ্জামান জানান, রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের গাজীপুরের বাঘের বাজার এলাকায় ‘আলম এশিয়া’ নামক একটি পরিহবনের শ্রমিকরা চলন্ত বাস থেকে সালাউদ্দিনকে (৩৫) ফেলে দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নিহতের ভাই বাদী হয়ে বাসের ড্রাইভার, হেলপার, কন্ট্রাকটর ও সুপারভাইজারকে আসামি থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

তিনি জানান, জয়দেবপুর থানা পুলিশ অভিযান চারিয়ে ময়মনসিংহের ধোবাউড়া সীমান্ত দিয়ে ভারতে পালিয়ে যাওয়ার সময় ওই বাসের চালক মো. রোকনউদ্দিনকে গ্রেফতার করা হয়।

তিনি আরো জানান, মামলার বাকি আসামিরাও তাদের নজরদারিতে রয়েছে। খুব দ্রুতই তাদের গ্রেফতারে সক্ষম হবেন।

উল্লেখ্য, নিহত সালাউদ্দিন স্ত্রীকে নিয়ে ঈদের ছুটিতে ময়মনসিংহে শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে যান। রোববার তারা ময়মনসিংহ থেকে আলম এশিয়া পরিবহনের একটি বাসে গাজীপুরের বাঘের বাজারে ভাড়া বাসায় ফিরছিলেন। পথে তার সঙ্গে ভাড়া নিয়ে পরিবহনের সহকারীর বাকবিতণ্ডা হয়। পরে একপর্যায়ে গাড়ির ভেতরেই সালউদ্দিনকে মারধর করে ওই বাসের লোকজন। তাদেরকে বাঘের বাজারে নামতে না দিয়ে গাড়িটি চলতে শুরু করে। এ সময় তারা কান্নাকাটি শুরু করলে ঘটনাস্থল থেকে দেড় কিলোমিটার দূরে নিয়ে গাড়ির গতি কমিয়ে তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। এতে ওই বাসের নিচে চাপা পরে ঘটনাস্থলেই সালাউদ্দিনের মৃত্যু হয়।

চলন্ত বাস থেকে ফেলে যাত্রী হত্যায় চালক গ্রেফতার

 গাজীপুর প্রতিনিধি 
১০ জুন ২০১৯, ১০:০৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
‘আলম এশিয়া’ বাসের চালক রোকনউদ্দিন
‘আলম এশিয়া’ বাসের চালক রোকনউদ্দিন

বাস ভাড়া নিয়ে বাকবিতণ্ডার জেরে গাজীপুরে চলন্ত বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে এক যাত্রীকে হত্যার ঘটনায় ‘আলম এশিয়া’ বাসের চালক রোকনউদ্দিনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার বিকালে ময়মনসিংহের ধোবাউড়া থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

জয়দেবপুর থানার ওসি মো. আসাদুজ্জামান জানান, রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের গাজীপুরের বাঘের বাজার এলাকায় ‘আলম এশিয়া’ নামক একটি পরিহবনের শ্রমিকরা চলন্ত বাস থেকে সালাউদ্দিনকে (৩৫) ফেলে দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নিহতের ভাই বাদী হয়ে বাসের ড্রাইভার, হেলপার, কন্ট্রাকটর ও সুপারভাইজারকে আসামি থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

তিনি জানান, জয়দেবপুর থানা পুলিশ অভিযান চারিয়ে ময়মনসিংহের ধোবাউড়া সীমান্ত দিয়ে ভারতে পালিয়ে যাওয়ার সময় ওই বাসের চালক মো. রোকনউদ্দিনকে গ্রেফতার করা হয়।

তিনি আরো জানান, মামলার বাকি আসামিরাও তাদের নজরদারিতে রয়েছে। খুব দ্রুতই তাদের গ্রেফতারে সক্ষম হবেন।

উল্লেখ্য, নিহত সালাউদ্দিন স্ত্রীকে নিয়ে ঈদের ছুটিতে ময়মনসিংহে শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে যান। রোববার তারা ময়মনসিংহ থেকে আলম এশিয়া পরিবহনের একটি বাসে গাজীপুরের বাঘের বাজারে ভাড়া বাসায় ফিরছিলেন। পথে তার সঙ্গে ভাড়া নিয়ে পরিবহনের সহকারীর বাকবিতণ্ডা হয়। পরে একপর্যায়ে গাড়ির ভেতরেই সালউদ্দিনকে মারধর করে ওই বাসের লোকজন। তাদেরকে বাঘের বাজারে নামতে না দিয়ে গাড়িটি চলতে শুরু করে। এ সময় তারা কান্নাকাটি শুরু করলে ঘটনাস্থল থেকে দেড় কিলোমিটার দূরে নিয়ে গাড়ির গতি কমিয়ে তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। এতে ওই বাসের নিচে চাপা পরে ঘটনাস্থলেই সালাউদ্দিনের মৃত্যু হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন