তালতলী আ’লীগ নেতা মিন্টুকে ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম!

প্রকাশ : ১০ জুন ২০১৯, ২২:৪৪ | অনলাইন সংস্করণ

  আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি

উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও যুবলীগ সভাপতি মো. মনিরুজ্জামান মিন্টু

বরগুনার তালতলী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বিদ্রোহী প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও যুবলীগ সভাপতি মো. মনিরুজ্জামান মিন্টুকে নির্বাচনী প্রচারণা কার্যক্রম থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম দিয়েছে বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগ।

প্রচারণা থেকে সরে না দাঁড়ালে তার বিরুদ্ধে দলীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে সোমবার উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

জানা গেছে, গত ৯ মে তালতলী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। ভোটগ্রহণ ১৮ জুন। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পেতে গত ১৩ মে তালতলী উপজেলা আওয়ামী লীগ বর্ধিত সভা করে চারজনের নাম প্রস্তাব করে বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে তালিকা প্রেরণ করেন।

বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগ ওই চারজন থেকে মো. রেজবি-উল-কবির জোমাদ্দার, মো. তৌফিকুজ্জামান তনু ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি যুবলীগ সভাপতি বর্তমান বরখাস্তকৃত উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মনিরুজ্জামান মিন্টুর নাম প্রস্তাব করে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তালিকা পাঠায়।

কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ যাছাই বাছাই কমিটি তালতলী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মো. রেজবি-উল-কবির জোমাদ্দারকে মনোনয়ন দিয়েছেন। দলের মনোনয়ন না পেয়ে মো. মনিরুজ্জামান মিন্টু দলের বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে লড়ছেন।

বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে দলের মনোনীত প্রার্থীর বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করায় দলীয় শৃংখলা ভঙ্গের অভিযোগ ওঠে তার বিরুদ্ধে। দলীয় শৃংখলা ভঙ্গের দায়ে তাকে দল থেকে বহিষ্কারের দাবি তুলেছেন অনেক নেতা-কর্মী।

সোমবার তালতলী উপজেলা আওয়ামীলীগ বর্ধিত সভা করে বিদ্রোহী প্রার্থী মো. মনিরুজ্জামান মিন্টুকে নির্বাচনী প্রচারণা থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম দিয়েছে বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগ। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে নির্বাচনী প্রচারণা থেকে সরে না দাড়ালে তার বিরুদ্ধে দলীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ায় সিদ্ধান্ত হয় ওই সভায়।

তালতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছোটবগী ইউপি চেয়ারম্যান মো. তৌফিকুজ্জামান তনু বলেন, মনিরুজ্জামান মিন্টুকে নির্বাচনী প্রচারণা থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য বরগুনা জেলা কমিটি ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম দিয়েছে।  ২৪ ঘণ্টার মধ্যে নির্বাচনী প্রচারণা কার্যক্রম থেকে সরে না দাঁড়ালে তার বিরুদ্ধে দলীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মনিরুজ্জামান মিন্টু বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের দেয়া ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটামের বিষয়টি জানেন না বলে উল্লেখ করেন।  
তিনি বলেন, নির্বাচনী প্রচারণা থেকে সরে দাঁড়ানোর প্রশ্নই আসে না। আমি আমার মতো নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়ে যাব।

বরগুনার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গির কবির বলেন, আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে মনিরুজ্জামান মিন্টু নির্বাচনী প্রচারণা থেকে সরে না দাঁড়ালে তার বিরুদ্ধে দলীয় শৃংখলা ভঙ্গের অভিযোগে দলের সব পদ থেকে বহিষ্কারের সুপারিশ করে কেন্দ্রীয় কার্যালয় পাঠানো হবে। কেন্দ্র তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।