মায়ের কোল থেকে ছিটকে ট্রাক্টরচাকায় পিষ্ট শিশু

প্রকাশ : ১২ জুন ২০১৯, ১৮:১২ | অনলাইন সংস্করণ

  চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গার বাবা-মায়ের সামনেই বালুভর্তি ট্রাক্টরের চাকায় পিষ্ট হয়ে মারা গিয়েছে ৬ মাসের শিশুপুত্র জুনায়েদ।

বুধবার সকালে আলমডাঙ্গা উপজেলার হারদী থানাপাড়ায় মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত শিশু জুনায়েদ হোসেন পার্শ্ববর্তী মিরপুর উপজেলার মালিহাদ গ্রামের মিন্টু হোসেনের ছেলে। ঘটনার পরপরই বালুভর্তি ট্রাক্টরটিকে পুলিশ আটক করেছে। ড্রাইভার হেলপার পালিয়ে গেছে।

পুলিশ ও এলাকাসূত্রে জানা গেছে, কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার মালিহাদ গ্রামের মিন্টু হোসেন ১০ বছর আগে বিয়ে করেন পার্শ্ববর্তী চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার বাঁশবাড়ীয়া গ্রামের অহিদুলের মেয়ে মৌসুমী খাতুনকে। তাদের কোনো সন্তানাদি না হওয়ায় মিন্টু তার আপন ভাই পিন্টুর শিশুপুত্র জুনায়েদকে দত্তক নেন।

ঈদের পর মিন্টুর স্ত্রী মৌসুমী তাদের দত্তক নেয়া শিশুপুত্র নিয়ে পিতার বাড়ি আলমডাঙ্গার বাঁশবাড়ীয়ায় বেড়াতে যান। 

বুধবার সকাল ১০টার দিকে মিন্টু মোটরসাইকেলযোগে স্ত্রী মৌসুমী ও শিশুপুত্র জুনায়েদকে নিয়ে নিজের বাড়ি মিরপুরের মালিহাদ গ্রামে ফিরছিলেন।

আলমডাঙ্গার হারদী থানাপাড়ায় পৌঁছালে সামনে থেকে আসা বালুভর্তি ট্রাক্টরকে সাইড দিয়ে যান। এ সময় ট্রাক্টরের ধাক্কায় শিশুপুত্রসহ মৌসুমী ছিটকে পড়েন। এতে মৌসুমী রক্ষা পেলেও ট্রাক্টরের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায় ৬ মাসের শিশুপুত্র জুয়ায়েদ।

আলমডাঙ্গা থানার ওসি মুন্সী আসাদুজ্জামান জানান, ‘ঘটনাটি খুব মর্মান্তিক। ঘটনাস্থল থেকে বালুভর্তি ট্রাক্টরটিকে আটক করা হয়েছে। চালক ও হেলপারকে খোঁজা হচ্ছে।’