অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশ, বেনাপোলে ৩ পুলিশ ক্লোজড

  বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি ১৮ জুন ২০১৯, ২০:০২ | অনলাইন সংস্করণ

বেনাপোল

অবৈধভাবে ভারতে প্রবেশের অভিযোগে সোমবার সন্ধ্যায় যশোরের বেনাপোল ইমিগ্রেশনের ৩ পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করে যশোর পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে এই আদেশ কার্যকর করা হয়।

এছাড়া পুলিশের সঙ্গে থাকা ইমিগ্রেশনের ক্যাশিয়ারখ্যাত রুহুল আমিন নামে এক যুবককে হুন্ডির ১২ লাখ টাকাসহ আটক করেছে সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ।

প্রত্যাহারকৃত পুলিশ সদস্যরা হলেন- কনস্টেবল এসকে আযম, কনস্টেবল রুমা বেপারী ও কনস্টেবল তৃষা বিশ্বাস।

পুলিশ জানায়, বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের সঙ্গে থাকা রুহুল আমিন তিন পুলিশ সদস্য আযম, রুমা বেপারী ও তৃষা বিশ্বাসকে সঙ্গে নিয়ে পাসপোর্ট ছাড়া মৌখিকভাবে বিজিবি ও বিএসএফকে জানিয়ে কেনাকাটার নাম করে ভারতে প্রবেশ করেন। এ সময় কনস্টেবল আযম সাদা পোশাক এবং অন্য দুই পুলিশ সদস্য সরকারি পোশাকে ছিলেন।

আধা ঘণ্টা পর হুন্ডির ১২ লাখ টাকা নিয়ে তারা চারজন ফেরার সময় গোপন সংবাদে ভারতের পেট্রাপোল ক্যাম্পের বিএসএফ সদস্যরা তাদের ধরে নিয়ে যায়। পরে তাদের শরীর তল্লাশি করে রুহুল আমিনের ব্যাগে থাকা ১২ লাখ টাকা উদ্ধার করে বিএসএফ।

৩ পুলিশ সদস্য আটকের খবর পেয়ে বিভিন্ন মহল থেকে তাদের ছাড়াতে দেনদরবার শুরু হয়। এক পর্যায়ে সমঝোতায় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের ওসি আবুল বাশারের কাছে বিএসএফ সদস্যরা আটক তিন পুলিশ সদস্যকে তুলে দেন। অপর ব্যক্তি রুহুলকে টাকাসহ আটকে রাখে।

বেনাপোল চেকপোস্ট আইসিপি ক্যাম্পের সুবেদার বাকি বিল্লা জানান, পুলিশ সদস্যরা কেনাকাটার নাম করে ভারতে যান। তারা ফিরে আসার সময় বিএসএফ সদস্যরা তাদের ক্যাম্পে নিয়ে তল্লাশি করে। পরে তাদের ব্যাগ থেকে হুন্ডির ১২ লাখ টাকাসহ রুহুল নামে আরেকজনকে আটক করে। আর তিন পুলিশ সদস্যকে ছেড়ে দিয়েছে।

বেনাপোল ইমিগ্রেশনের ওসি আবুল বাশার জানান, যার কাছে হুন্ডির ১২ লাখ টাকা পাওয়া গেছে, তাকে বিএসএফ আটকে রেখেছে। পুলিশ সদস্যদের কাছে কিছু না পাওয়ায় তাদেরকে ছেড়ে দিয়েছে।

তিনি বলেন, তবে অফিসকে না জানিয়ে ভারতে যাওয়ার অভিযোগে তিন পুলিশ সদস্যকে বেনাপোল ইমিগ্রেশন থেকে যশোর পুলিশ লাইনে প্রত্যাহারের নির্দেশ এসেছে।

আরও পড়ুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×