প্রকল্পের বিল চাওয়ায় মেম্বারকে পেটালেন চেয়ারম্যান
jugantor
প্রকল্পের বিল চাওয়ায় মেম্বারকে পেটালেন চেয়ারম্যান

  ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি  

১৯ জুন ২০১৯, ২১:০৬:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকার ধামরাইয়ে এলজিএসপি প্রকল্পের বিল চাওয়ায় ইউপি চেয়ারম্যান বেদম পিটিয়ে আহত করেছে এক ইউপি মেম্বারকে। ওই ইউপি মেম্বারকে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটেছে ধামরাই সদর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের ভেতরে। এ ঘটনায় থানায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

প্রক্ষদর্শীরা জানায়, ধামরাই সদর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের নির্বাচিত সদস্য মো. আব্দুর রহিম তার নির্বাচনী এলাকায় এলজিএসপি প্রকল্পের আওতায় রাস্তায় ইট বিছানোর কাজ করে। যার মূল্য ১ লাখ টাকা।

মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় আবদুর রহিম মেম্বার পরিষদে এসে ইউপি চেয়ারম্যান সাহাবুদ্দিনের কাছে উক্ত প্রকল্পের টাকা দাবি করে।

ইউপি চেয়ারম্যান উক্ত টাকা দিতে অস্বীকার করলে দুজনের মধ্যে তুমুল বাকযুদ্ধ শুরু হয়। একপর্যায়ে সন্ধ্যা ৭টার দিকে ওই ইউপি চেয়ারম্যান ইউপি মেম্বার মো. আবদুর রহিমকে বেধরক মারধর করে।

এতে আবদুর রহিম গুরুতর আহত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। অপরাপর ইউপি সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা ইউপি সদস্য মো. ফারুক হোসেন জানান,আবদুর রহিম ইউনিয়ন পরিষদে এসে তার কাজের বিল চায়। ইউপি চেয়ারম্যান তা দিতে অস্বীকার করে। ফলে ব্যাপক কথাকাটি হয় দুজনের মধ্যে। একপর্যায়ে বিল না দিয়ে ওই ইউপি চেয়ারম্যান পরিষদ থেকে বের হয়ে যেতে চাইলে ওই ইউপি মেম্বার তার গতিরোধ করে। এরপর তিনি ক্ষুব্ধ হয়ে ওই ইউপি মেম্বারকে বেধরক মারধর করে।

ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাহাবুদ্দিন বলেন, এলজিএসপি প্রকল্পের আওতায় কোনো কাজ সদস্যরা করতে পারে না। তারা প্রকল্পের সভাপতি থেকে একজন ঠিকাদারের মাধ্যমে কাজ করাতে হবে। তাই তার বিল দিতে অস্বীকার করি। আর সে আমার সঙ্গে অসদাচরণ করে। ফলে বাধ্য হয়ে তার ওপর চড়াও হতে বাধ্য হই।

প্রকল্পের বিল চাওয়ায় মেম্বারকে পেটালেন চেয়ারম্যান

 ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি 
১৯ জুন ২০১৯, ০৯:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকার ধামরাইয়ে এলজিএসপি প্রকল্পের বিল চাওয়ায় ইউপি চেয়ারম্যান বেদম পিটিয়ে আহত করেছে এক ইউপি মেম্বারকে। ওই ইউপি মেম্বারকে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটেছে ধামরাই সদর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের ভেতরে। এ ঘটনায় থানায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

প্রক্ষদর্শীরা জানায়, ধামরাই সদর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের নির্বাচিত সদস্য মো. আব্দুর রহিম তার নির্বাচনী এলাকায় এলজিএসপি প্রকল্পের আওতায় রাস্তায় ইট বিছানোর কাজ করে। যার মূল্য ১ লাখ টাকা। 

মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় আবদুর রহিম মেম্বার পরিষদে এসে ইউপি চেয়ারম্যান সাহাবুদ্দিনের কাছে উক্ত প্রকল্পের টাকা দাবি করে।

ইউপি চেয়ারম্যান উক্ত টাকা দিতে অস্বীকার করলে দুজনের মধ্যে তুমুল বাকযুদ্ধ শুরু হয়। একপর্যায়ে সন্ধ্যা ৭টার দিকে ওই ইউপি চেয়ারম্যান ইউপি মেম্বার মো. আবদুর রহিমকে বেধরক মারধর করে।

এতে আবদুর রহিম গুরুতর আহত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। অপরাপর ইউপি সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা ইউপি সদস্য মো. ফারুক হোসেন জানান,আবদুর রহিম ইউনিয়ন পরিষদে এসে তার কাজের বিল চায়। ইউপি চেয়ারম্যান তা দিতে অস্বীকার করে। ফলে ব্যাপক কথাকাটি হয় দুজনের মধ্যে। একপর্যায়ে বিল না দিয়ে ওই ইউপি চেয়ারম্যান পরিষদ থেকে বের হয়ে যেতে চাইলে ওই ইউপি মেম্বার তার গতিরোধ করে। এরপর তিনি ক্ষুব্ধ হয়ে ওই ইউপি মেম্বারকে বেধরক মারধর করে।

ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাহাবুদ্দিন বলেন, এলজিএসপি প্রকল্পের আওতায় কোনো কাজ সদস্যরা করতে পারে না। তারা প্রকল্পের সভাপতি থেকে একজন ঠিকাদারের মাধ্যমে কাজ করাতে হবে। তাই তার বিল দিতে অস্বীকার করি। আর সে আমার সঙ্গে অসদাচরণ করে। ফলে বাধ্য হয়ে তার ওপর চড়াও হতে বাধ্য হই।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন