মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সামনে রোহিঙ্গাদের বিক্ষোভ

  উখিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি ২০ জুন ২০১৯, ২২:০৮ | অনলাইন সংস্করণ

মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সামনে রোহিঙ্গাদের বিক্ষোভ
মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সামনে রোহিঙ্গাদের বিক্ষোভ

বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত রবার্ট মিলার কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেছেন। এ সময় তার সামনেই বিক্ষোভ করেন রোহিঙ্গারা।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে যান। এসময় রোহিঙ্গারা বিভিন্ন দাবি দাওয়া নিয়ে বিক্ষোভ করেন।

পরে মার্কিন রাষ্ট্রদূত তাদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেন এবং সব ধরণের সহযোগিতার আশ্বাস দেন। পরে দুপুর ১২টার দিকে বিশ্ব শরণার্থী দিবস উপলক্ষে আয়োজিত র‌্যালিতে যোগদান করেন। এ সময় ফের একদল রোহিঙ্গাদের বিক্ষোভের মুখে পড়েন মার্কিন রাষ্ট্রদূত।

র‌্যালিটি মধুরছড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে কুতুপালং রেজি: ক্যাম্পে আসার পথে একদল রোহিঙ্গা ‘আমরা শরণার্থী জীবন যাপন করতে চাই না, আমরা স্বদেশে ফিরতে চাই’ শ্লোগান দিনে বিক্ষোভ করে র‌্যালিটি আটকে দেয়।

প্রায় আধাঘণ্টা পর আইনশৃংখলা বাহিনী সদস্যরা রোহিঙ্গাদের শান্ত করেন এবং রোহিঙ্গা নেতাদের সঙ্গে কুতুপালং রেজি: ক্যাম্পে বৈঠকে বসেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত। সেখানে রোহিঙ্গারা তাদের বিভিন্ন দাবি দাওয়া তুলে ধরেন এবং মার্কিন রাষ্ট্রদূত তাদের আশ্বস্ত করেন।

মার্কিন রাষ্ট্রদূতের বৈঠকে অংশ নেয়া উখিয়ার কুতুপালং রেজি: ক্যাম্পের রোহিঙ্গা প্রতিনিধি মো. ইউনুছ আরমান বলেন, ‘মার্কিন রাষ্ট্রদূত আমাদের বলেছেন, বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের আমেরিকার সরকার ৭ বিলিয়ন ডলার সহযোগিতা দিয়েছে। এ সহযোগিতা আরও অব্যাহত থাকবে। এর জবাবে রোহিঙ্গাদের পক্ষ থেকে আমি বলেছি, আমাদের সহযোগিতার দরকার নেই। রোহিঙ্গাদের জন্য দেয়া মার্কিন ডলার বিভিন্ন এনজিও নানাভাবে খরচ করছে। সব সাহায্য রোহিঙ্গাদের হাতে পৌঁছাচ্ছে না।’

তিনি বলেন, ‘এই মুহূর্তে আমাদের দরকার চীন সরকারের মাধ্যমে মিয়ানমারকে চাপ দিয়ে সম্মানের সঙ্গে আমাদের ফেরত পাঠানো। কারণ, বাংলাদেশ একটি জনসংখ্যাবহুল দেশ। এই দেশে থাকলে যে কোনো সময়ে স্থানীয়দের সঙ্গে অপ্রীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে।’

মো. ইউনুছ আরমান বলেন, ‘আমরা এই দেশে থাকতে আসিনি। বাংলাদেশ সরকার আমাদের জায়গা দেয়ায় আমরা আজীবন কৃতজ্ঞ। এছাড়াও আমরা বিভিন্ন দাবি-দাওয়া উত্থাপন করেছি মার্কিন সরকারের কাছে। তিনি আমাদের আশ্বস্ত করেছেন এবং রোহিঙ্গাদের পাশের থাকার পুনরায় অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছেন।’

এসময় ইউএনএইচসিআরের বাংলাদেশের প্রধান স্টিফেন করলিস, কক্সবাজার শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার আবুল কালামসহ সরকারি কর্মকর্তা, আন্তর্জাতিক সংস্থা ও বিভিন্ন এনজিওর প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।

র‌্যালি শেষে রোহিঙ্গাদের উদ্দেশে ‘ইউএনএইচসিআরের বাংলাদেশের প্রধান স্টিফেন করলিস বলেছেন, বিশ্ব শরণার্থীদের দিবসে আমরা রোহিঙ্গাদের প্রতি সংহতি প্রকাশ করতে ক্যাম্পে এসেছি। আমরা রোহিঙ্গাদের পাশে আছি এবং থাকব। আমরা মনে করি বাংলাদেশের এই রোহিঙ্গাদের (সহযোগিতার) মাধ্যমে বিশ্বের ৭ কোটি শরণার্থীদের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করছি।

কক্সবাজার শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার আবুল কালাম জানিয়েছেন, ‘বিশ্ব শরণার্থী দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত রবার্ট মিলার উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেন। ক্যাম্পে রোহিঙ্গা শিশুদের চিত্রাংকণ প্রতিযোগিতা ও র‌্যালিতে অংশগ্রহণ করেন।

তিনি বলেন, এ সময় বিভিন্ন দাবি দাওয়া নিয়ে রোহিঙ্গাদের একটি দল শ্লোগান দিয়ে বিক্ষোভ করে রাষ্ট্রদূতের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। পরে মার্কিন রাষ্ট্রদূত তাদের কথা শুনেন। এ সময় রোহিঙ্গাদের দাবির প্রতি সংহতি প্রকাশ করেন এবং তাদের আশ্বস্ত করেন। পরে মার্কিন রাষ্ট্রদূত ক্যাম্প থেকে ফিরে আসেন।

আরও পড়ুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×