উপবন উদ্ধারকাজে ফায়ার সার্ভিসের ১১ ইউনিট
jugantor
উপবন উদ্ধারকাজে ফায়ার সার্ভিসের ১১ ইউনিট

  সিলেট ব্যুরো  

২৪ জুন ২০১৯, ০৪:৪৯:৫৫  |  অনলাইন সংস্করণ

উপবন উদ্ধারকাজে ফায়ার সার্ভিসের ১১ ইউনিট

সিলেটের মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার বরমচাল স্টেশন সংলগ্ন বড়ছড়া এলাকায় দুর্ঘটনার কবলে পড়া আন্তঃনগর উপবন এক্সপ্রেসের বগি ও যাত্রীদের উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিসের ১১টি ইউনিট কাজ করছে। উদ্ধার কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। তবে রেললাইন স্বাভাবিক হতে সময় লাগবে।

রেলওয়ের লোকজন আসলেও রাত পৌনে ৪টা পর্যন্ত ঘটনাস্থলে পৌঁছেনি তাদের উদ্ধারকারী দল।

ঘটনাস্থল থেকে যুগান্তরকে এ তথ্য জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সিলেট বিভাগীয় উপ-পরিচালক মোহাম্মদ আলী।

তিনি জানান, ঘটনার খবর পাওয়ার পরই সিলেটের বিভিন্ন স্টেশনের ১১টি ইউনিটের ৫৪ জন লোক ও ৫টি অ্যাম্বুলেন্স ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কাজ শুরু করে। ১৬টি বগির ট্রেনের ছয়টিবগি দুর্ঘটনার শিকার হয়। এরমধ্যে শেষ বগি খালে, ৩টি লাইনচ্যুত ও ২টি আংশিক লাইনচ্যুত হয়।

তিনি আরো জানান, ঘটনাস্থল থেকে আমরা ৪টি মরদেহ ও আহত ২৭ জনকে উদ্ধার করেছি। নিহতের মধ্যে তিন নারী ও একজন পুরুষ রয়েছেন। লাশগুলো উদ্ধার করে কুলাউড়া সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত হতাহতের সঠিক সংখ্যা জানানো সম্ভব হচ্ছে না। উদ্ধার কাজ শেষে বিস্তারিত জানানো হবে।

মোহাম্মদ আলী আরও জানান, রেলওয়ের লোক এসেছেন। তবে এখনো উদ্ধারকারী দল ঘটনাস্থলে পৌঁছেনি।

এর আগে রোববার রাত পৌনে ১২টার দিকে সিলেট থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া আন্তঃনগর উপবন এক্সপ্রেস ভয়াবহ দুর্ঘটনার কবলে পড়ে।

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার বরমচাল স্টেশন থেকে ২০০ মিটার দূরে কালা মিয়া বাজার সংলগ্ন একটি ব্রিজে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

উপবন উদ্ধারকাজে ফায়ার সার্ভিসের ১১ ইউনিট

 সিলেট ব্যুরো 
২৪ জুন ২০১৯, ০৪:৪৯ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
উপবন উদ্ধারকাজে ফায়ার সার্ভিসের ১১ ইউনিট
ছবি: যুগান্তর

সিলেটের মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার বরমচাল স্টেশন সংলগ্ন বড়ছড়া এলাকায় দুর্ঘটনার কবলে পড়া আন্তঃনগর উপবন এক্সপ্রেসের বগি ও যাত্রীদের উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিসের ১১টি ইউনিট কাজ করছে। উদ্ধার কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। তবে রেললাইন স্বাভাবিক হতে সময় লাগবে। 

রেলওয়ের লোকজন আসলেও রাত পৌনে ৪টা পর্যন্ত ঘটনাস্থলে পৌঁছেনি তাদের উদ্ধারকারী দল।   

ঘটনাস্থল থেকে যুগান্তরকে এ তথ্য জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সিলেট বিভাগীয় উপ-পরিচালক মোহাম্মদ আলী। 

তিনি জানান, ঘটনার খবর পাওয়ার পরই সিলেটের বিভিন্ন স্টেশনের ১১টি ইউনিটের ৫৪ জন লোক ও ৫টি অ্যাম্বুলেন্স ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কাজ শুরু করে। ১৬টি বগির ট্রেনের ছয়টিবগি দুর্ঘটনার শিকার হয়। এরমধ্যে শেষ বগি খালে, ৩টি লাইনচ্যুত ও ২টি আংশিক লাইনচ্যুত হয়।

তিনি আরো জানান, ঘটনাস্থল থেকে আমরা ৪টি মরদেহ ও আহত ২৭ জনকে উদ্ধার করেছি। নিহতের মধ্যে তিন নারী ও একজন পুরুষ রয়েছেন। লাশগুলো উদ্ধার করে কুলাউড়া সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত হতাহতের সঠিক সংখ্যা জানানো সম্ভব হচ্ছে না। উদ্ধার কাজ শেষে বিস্তারিত জানানো হবে।

মোহাম্মদ আলী আরও জানান, রেলওয়ের লোক এসেছেন। তবে এখনো উদ্ধারকারী দল ঘটনাস্থলে পৌঁছেনি।

এর আগে রোববার রাত পৌনে ১২টার দিকে সিলেট থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া আন্তঃনগর উপবন এক্সপ্রেস ভয়াবহ দুর্ঘটনার কবলে পড়ে।

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার বরমচাল স্টেশন থেকে ২০০ মিটার দূরে কালা মিয়া বাজার সংলগ্ন একটি ব্রিজে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

 
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন