সিদ্ধিরগঞ্জে ছাত্রীদের হয়রানি থেকে পরিত্রাণ ও করণীয় শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক

  সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি ১২ জুলাই ২০১৯, ০৭:০৭ | অনলাইন সংস্করণ

সিদ্ধিরগঞ্জে ছাত্রীদের হয়রানি থেকে পরিত্রাণ ও করণীয় শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক

শিক্ষক কর্তৃক ছাত্রী ধর্ষণ ও যৌন হয়রানি থেকে পরিত্রাণের উপায় ও করণীয় শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক করেছে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা প্রেসক্লাব।

বৃহস্পতিবার বিকালে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে চিটাগাংরোডস্থ তাজমহল চাইনিজ রেষ্ট্যুরেন্ট এন্ড পার্টি সেন্টারে প্রশাসণিক কর্মকর্তা, সাংবাদিক ও শিক্ষক-শিক্ষীকাদের নিয়ে এ গোলটেবিলের আয়োজন করা হয়।

এসময় বক্তারা বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে ধর্ষণ রোধে সরকার ও প্রশাসনের জোড়ালো ভূমিকা পালনের আহ্বান জানান।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানা প্রেস ক্লাবের সভাপতি হোসেন চিশতী সিপলু’র সভাপতিত্বে ওই গোলটেবিল বৈঠকে বক্তব্য রাখেন সরকারি আদমজীনগর এমডব্লিউ কলেজের অধ্যক্ষ নূর আক্তার, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার্স ইনচার্জ মীর শাহীন শাহ পারভেজ, রূপগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি মীর আব্দুল আলিম, দৈনিক জনকণ্ঠের স্টাফ রিপোর্টার মো. খলিলুর রহমান, নিউজ নারায়ণগঞ্জের প্রধান সম্পাদক শাহজাহান শামীম, নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক ক্রীড়া সম্পাদক ও নাসিক ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আরিফুল হক হাসান, নারী কাউন্সিলর আয়শা আক্তার দিনা, নারায়ণগঞ্জ মহানগর হেফাজত ইসলামের মহাসচিব মাওলানা ফেরদৌসুর রহমান, মিজমিজি পশ্চিমপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইদুর রহমান, বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাশেদুল মতিন মিল্টন, মজিব ফ্যাশনের এমডি ও তরুণ যুবনেতা মাহমুদুর রহমান।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরহাদ হোসাইনের সঞ্চালনে গোলটেবিল বৈঠকে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ডেইলি স্টারের জেলা প্রতিনিধি সনদ সাহা সানী, আরটিভির জেলা প্রতিনিধি শাহাদাত হোসেন স্বপন, কালের কণ্ঠের সাংবাদিক আসাদুজ্জামান নূর, বাংলাদেশ প্রতিনিধির সাংবাদিক এম এ শাহীন, ফটোসাংবাদিক বিশাল আহমেদ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে কোরআন তেলাওয়াত করেন ফিরোজিয়া ইসলামিক মাদ্রাসার শিক্ষক হাফেজ মাওলানা মোঃ মনিরুজ্জামান সোহেল। গোলটেবিল বৈঠকের মিডিয়া পার্টনার ছিল নিউজ নারায়ণগঞ্জ২৪ ডটনেট।

গোলটেবিল বৈঠকে সরকারি আদমজীনগর এমডব্লিউ কলেজের অধ্যক্ষ নূর আক্তার পলি বলেন, ছাত্রী ধর্ষণকারীরা কখনও শিক্ষক হতে পারেনা। ‘শিক্ষক’ এই মহান শব্দটি তাদের নামের পাশে আনা উচিৎ হবেনা। যারা এমন অপরাধে জড়িত থাকবে, প্রকাশ্যে তাদের কঠিন শাস্তির ব্যবস্থা করা হোক।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর শাহীন শাহ পারভেজ বলেন, যারা ছাত্রীদের ধর্ষণ করে, তাদেরকে শিক্ষক বলা যাবেনা। তারা কুলাঙ্গার। মা-বাবার পর মানুষ গড়ার কারিগর এই শিক্ষক সমাজ।

আগে কখনও শিক্ষক কর্তৃক ছাত্রী ধর্ষণের এমন নজীরবিহীন খবর শুনিনি। আমি সত্যিই হতভম্ব। দায়িত্ব অভিভাবকদের। সন্তানদের বাসা থেকেই নৈতিক শিক্ষা দিতে হবে।

শিক্ষক নামে ওই নরপশুরা ছাত্রীদের সরলতার সুযোগ নিয়ে এমন অপকর্ম করে। ধর্ষণের শিকার এসব ছাত্রীরাও ভয়ে কাউকে কিছু বলতে পারেনা। তাই সন্তানদের প্রতি খেয়াল রাখতে হবে অভিভাবকদেরই।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×