ফেসবুকে পরিচয়, লক্ষ্মীপুরে ঘর বাঁধলেন মার্কিন নারী
jugantor
ফেসবুকে পরিচয়, লক্ষ্মীপুরে ঘর বাঁধলেন মার্কিন নারী

  লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি  

১৭ জুলাই ২০১৯, ২২:২১:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

সারলেট ও সোহেল
সারলেট ও সোহেল

ফেসবুকে পরিচয়ে সারলেট নামের এক মার্কিন নারী ঘর বাঁধলেন এসে লক্ষ্মীপুরে। বুধবার দিনভর ওই মার্কিন নববধূকে দেখতে ভিড় করছেন কৌতূহলী মানুষ। 

এরআগে মঙ্গলবার রাতে সদর উপজেলার দত্তপাড়া ইউনিয়নের শ্রীরামপুর গ্রামের সফিক উল্যাহর ছেলে মো. সোহেলের সঙ্গে ওই নারীর বিয়ে হয়।

২০১৬ সালে ওই নারী একবার বাংলাদেশে আসেন।

২০১৩ সালে ফেসবুকে আমেরিকার নিউ জার্সির বাসিন্দা সারলেটের সঙ্গে সোহেলের পরিচয়। এরপর বন্ধুত্ব ও প্রেম। পরে উভয়ের পরিবারের সম্মতিতে ১২ জুলাই বাংলাদেশে আসেন সারলেট। অবশেষে বিয়ে হয় তাদের।

বিয়ে, বধূবরণ, ফুলসজ্জা সবই  হয় সোহেলের নিজ গ্রামের শ্রীরামপুর দাইয়ুম উল্যাহ পাটওয়ারী বাড়িতে।

মার্কিন এই নারীকে দেখতে আসেন ওই এলাকার হাজার হাজার মানুষ। ভিনদেশি হলেও পুত্রবধূকে দেখে বেশ খুশি সোহেলের মা-বাবা। 

সোহেল জানান, দীর্ঘ ৭ বছর আগে ফেসবুকের মাধ্যমে পরিচয় হয়ে বন্ধুত্বের সম্পর্ক গড়ে উঠে সারলেটের সঙ্গে। বন্ধুত্ব থেকে প্রেম, সারলেট ফের বাংলাদেশে আসলে বিয়ে হয়।

ফেসবুকে পরিচয়, লক্ষ্মীপুরে ঘর বাঁধলেন মার্কিন নারী

 লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি 
১৭ জুলাই ২০১৯, ১০:২১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সারলেট ও সোহেল
সারলেট ও সোহেল

ফেসবুকে পরিচয়ে সারলেট নামের এক মার্কিন নারী ঘর বাঁধলেন এসে লক্ষ্মীপুরে। বুধবার দিনভর ওই মার্কিন নববধূকে দেখতে ভিড় করছেন কৌতূহলী মানুষ।

এরআগে মঙ্গলবার রাতে সদর উপজেলার দত্তপাড়া ইউনিয়নের শ্রীরামপুর গ্রামের সফিক উল্যাহর ছেলে মো. সোহেলের সঙ্গে ওই নারীর বিয়ে হয়।

২০১৬ সালে ওই নারী একবার বাংলাদেশে আসেন।

২০১৩ সালে ফেসবুকে আমেরিকার নিউ জার্সির বাসিন্দা সারলেটের সঙ্গে সোহেলের পরিচয়। এরপর বন্ধুত্ব ও প্রেম। পরে উভয়ের পরিবারের সম্মতিতে ১২ জুলাই বাংলাদেশে আসেন সারলেট। অবশেষে বিয়ে হয় তাদের।

বিয়ে, বধূবরণ, ফুলসজ্জা সবই হয় সোহেলের নিজ গ্রামের শ্রীরামপুর দাইয়ুম উল্যাহ পাটওয়ারী বাড়িতে।

মার্কিন এই নারীকে দেখতে আসেন ওই এলাকার হাজার হাজার মানুষ। ভিনদেশি হলেও পুত্রবধূকে দেখে বেশ খুশি সোহেলের মা-বাবা।

সোহেল জানান, দীর্ঘ ৭ বছর আগে ফেসবুকের মাধ্যমে পরিচয় হয়ে বন্ধুত্বের সম্পর্ক গড়ে উঠে সারলেটের সঙ্গে। বন্ধুত্ব থেকে প্রেম, সারলেট ফের বাংলাদেশে আসলে বিয়ে হয়।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন