কম বিরতির কারণে ট্রেনে কেটে প্রাণ গেল নারীর

  ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি ১৮ জুলাই ২০১৯, ২১:০৯ | অনলাইন সংস্করণ

ভৈরব রেলওয়ে স্টেশন
ভৈরব রেলওয়ে স্টেশন

কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলায় তড়িঘড়ি করে ট্রেনে উঠতে গিয়ে জানু বেগম (৩৫) নামে এক নারী কাটা পড়ে মারা গেছেন।

বৃহস্পতিবার ঢাকা-চট্রগ্রামগামী চট্টলা আন্তঃনগর ট্রেন ভৈরব রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছালে এ ঘটনা ঘটে।

ট্রেনটি দুপুর ৩টা ২৩ মিনিটে ভৈরব রেলওয়ে স্টেশনে বিরতি দেয় এবং দুই মিনিট বিরতির পর ৩টা ২৫ মিনিটে ট্রেনটি ছেড়ে দেয়।

এতো কম সময়ের মধ্য তাড়াহুড়া করে ট্রেনে উঠতে গিয়ে জানু বেগম নামের ওই যাত্রী ট্রেনে কাটা পরে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারায়।

নিহত জানু বেগম স্বামীর কিশোরগঞ্জের মিটামইন থানার আমানপুর গ্রামের মইজউদ্দিনের স্ত্রী। তার লাশ ভৈরব রেলওয়ে পুলিশ উদ্ধার করে।

নিহত জানু বেগমের আত্মীয় মো. আজাদ মিয়া জানান, ট্রেনটি থামল আর ছেড়ে দিল। তাড়াহুড়া করে আমার বন্ধুর মা ট্রেনে উঠতে গিয়ে চাকার নিচে পরে গিয়ে নিহত হয়েছে বলে সে জানায়।

আজ তিনিসহ অসংখ্য যাত্রী ট্রেনে উঠতে পারেনি বলে জানান আজাদ।

ভৈরব রেলওয়ে স্টেশনের কেবিন মাস্টার মাহবুব হোসেন এই প্রতিনিধিকে জানায়, চট্রলা ট্রেনটি ভৈরব রেলওয়ে স্টেশনে বিকাল ৩টা ২৩ মিনিটে বিরতি দিয়ে ৩টা ২৫ মিনিটে ছেড়ে যায়।

এতো কম সময় বিরতিতে যাত্রীরা উঠানামা করতে পারে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ বিষয়টি আমার দেখার নয়। ভৈরবে ২ মিনিট বিরতির সিডিউল দেয়া আছে তাই নির্ধারিত সময় আমাকে গাড়ি ছাড়ার সিগনাল দিতেই হবে।

ভৈরব রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার মো. কামরুজ্জামান জানান, ভৈরবে বিরতির সময় দুই মিনিট। তবে ট্রেনের গার্ড যাত্রীর ভিড় দেখলে ট্রেন ছাড়ার সিগনাল কিছুটা পরে দিতে পারত। তিনি কেন সিগনাল কিছুটা সময় পরে দিলেন না সেটা তার বিষয়।

ভৈরব রেলওয়ে থানার ওসি আবদুল মজিদ জানান, চট্টলা ট্রেনটি ভৈরবে মাত্র দুই মিনিট বিরতি দেয়। আজকের দুর্ঘটনাটি কম বিরতির কারণেই ঘটছে বলে তিনি স্বীকার করেন।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×