শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি

ঘাটে সহস্রাধিক গাড়ি আটকা, পেঁয়াজসহ কাঁচামালে পচন

  শিবচর (মাদারীপুর) প্রতিনিধি ২১ জুলাই ২০১৯, ১৪:০০ | অনলাইন সংস্করণ

সহস্রাধিক গাড়ি আটকা, পেঁয়াজসহ কাঁচামালে পচন
শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়িতে সহস্রাধিক গাড়ি আটকা। ছবি: যুগান্তর

অস্বাভাবিক হারে পদ্মায় পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে তীব্র ঘূর্ণিস্রোত অব্যাহত রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় এ রুটে পানি বেড়েছে ১৩ সেন্টিমিটার। চলমান ফেরি অচলাবস্থায় ভোগান্তি আরও বেড়েছে।

পদ্মায় অস্বাভাবিক পানি বৃদ্ধির ফলে গত আট দিন ধরে নৌরুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। আজ রোববারও ওই নৌরুটে একই অবস্থা চোখে পড়ে।

উভয় পাড়ে সহস্রাধিক যানবাহন আটকা পড়ে আছে। যানবাহনের সারি আরও দীর্ঘ হয়ে টার্মিনাল, ঘাট সড়কের পর পদ্মা সেতুর অ্যাপ্রোচ সড়কের এক কিলোমিটার জুড়ে ট্রাকের সারি দেখা গেছে।

পেঁয়াজসহ কাঁচামালে পচন ধরেছে। ফলে যাত্রী ও পরিবহন শ্রমিকরা চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন।

জানা যায়, ওই নৌরুটে মাত্র ৪-৫টি ফেরি কোনোরকম চলছে। ফেরির অচলাবস্থার কারণে দক্ষিণাঞ্চলের বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে এ রুট হয়ে। চলছে শুধু কাটা সার্ভিস।

বিআইডব্লিউটিসির কাঁঠালবাড়ি ঘাট ম্যানেজার আ. সালাম জানান, পদ্মার অস্বাভাবিক পানি বৃদ্ধি পেয়ে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটের শুক্রবার তীব্র স্রোতের গতিবেগ আরও বেড়েছে। ২৪ ঘণ্টায় পানি বেড়েছে ১৩ সেন্টিমিটার।

মূল নদী থেকে লৌহজং টার্নিংয়ের প্রবেশ মুখে সৃষ্টি হয়েছে ভয়াবহ ঘূর্ণিস্রোত। গত মঙ্গলবার থেকে ফেরি পারাপারে অচলাবস্থা চলছে। ৪-৫টি ফেরি দিয়ে কোনোমতে যাত্রী ও যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে।

চলমান ফেরিগুলোও ঝুঁকি নিয়ে দীর্ঘসময় ব্যয় করে পদ্মা পাড়ি দিচ্ছে। এতে উভয় পাড়ে সহস্রাধিক যানবাহন আটকা পড়ে আছে। যানবাহনের লাইন পদ্মা সেতুর অ্যাপ্রোচ সড়ক পর্যন্ত পৌঁছেছে। অ্যাপ্রোচ সড়কের কিলোমিটার জুড়ে ট্রাকের সারি দেখা গেছে।

এতে যাত্রী ও পরিবহন শ্রমিকরা চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন। শিমুলিয়া থেকে ছেড়ে আসা সব ফেরি, লঞ্চ, স্পিডবোটগুলো উজান বেয়ে অতিরিক্ত সময় নিয়ে পদ্মা পাড়ি দিচ্ছে।

প্রতিটি ফেরি পারাপারে দীর্ঘ সময় বেশি সময় লাগছে। লঞ্চ পারাপারেও বেশি সময় লাগছে। এতে সময় বেশি ব্যয়ের সঙ্গে সঙ্গে বাড়তি জ্বালানিও খরচ হচ্ছে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×