রামপালের যুগান্তর প্রতিনিধির ওপর হামলা

  বাগেরহাট প্রতিনিধি ২১ জুলাই ২০১৯, ২২:৪৭ | অনলাইন সংস্করণ

বাগেরহাট

বাগেরহাটের রামপালের যুগান্তর প্রতিনিধি সুজন মজুমদারের ওপর আবারও হামলার ঘটনা ঘটেছে।

শনিবার দুপুর ১২টার দিকে পেশাগত কাজে ব্যস্ত থাকা অবস্থায় রামপাল উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শেখ হাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগের সভাপতি অনিকসহ বেশ কয়েকজন সাংবাদিক সুজনকে কিল-ঘুষি মেরে আহত করে।

এ সময়ে তার কাছে থাকা ক্যামেরাটিও তারা ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। পরে তারা সুজনকে রামপাল ছেড়ে চলে না গেলে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে চলে যায়।

রোববার বিকালে এ বিষয়ে মোবাইল কথা হলে রামপাল উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হাফিজুর রহমান সাংবাদিক সুজনকে মারপিট করে আহত করার বিষয়টি অস্বীকার করেন এবং ওই সাংবাদিকের নানা সমস্যা আছে এমন পাল্টা অভিযোগ তুলে ফোনের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়।

মারপিটে আহত সাংবাদিক সুজন মজুমদার বিষয়টি তাৎক্ষণিকভাবে প্রতিকার চেয়ে রামপাল থানার ওসি মো. তুহিন হাওলাদারকে মোবাইল ফোনে জানান। এ ঘটনায় রামপালসহ বাগেরহাটে কর্মরত সাংবাদিকদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

সাংবাদিক সুজন জানান, অনিয়ম দুনীতির বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করার কারণে তিনি এর আগেও একবার হামলাল শিকার হন। এ অবস্থায় তিনি হামলাকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

উল্লেখ্য, গত ১৭ মার্চ খইয়াম হোসেন খিজির সাংবাদিক সুজন মজুদারের ওপর একই কায়দায় হামলা করে তাকে গুরুতর আহত করে। পরে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বেশ কয়েকদিন ভর্তি থাকতে হয়।

ওই সময়ে রামপালে সাংবাদিকরা জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে প্রশাসনের কাছে আবেদনও করেন। এ ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই এবার রামপাল উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতির আক্রোশের শিকার হলেন সাংবাদিক সুজন।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×