ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্তের হার কমেছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
jugantor
ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্তের হার কমেছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

  যুগান্তর রিপোর্ট  

০৫ আগস্ট ২০১৯, ১৪:৫৪:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্তের হার আগের থেকে কমেছে। ডেঙ্গু প্রতিরোধে সারা দেশে সামাজিক আন্দোলন শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

সোমবার দুপুরে মানিকগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের দেখতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, সারা দেশে ডেঙ্গু প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলন শুরু হয়েছে। তাই ডেঙ্গুর সার্বিক পরিস্থিতি আগের চেয়ে অনেক ভালো।

ঈদের সময় সরকারি হাসপাতালের মতো বেসরকারি হাসপাতালেও ডেঙ্গু চিকিৎসাসেবা অব্যাহত রাখার আহ্বান জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

মন্ত্রী বলেন, সবার প্রচেষ্টা এবং সচেতনতার কারণে ডেঙ্গু আক্রান্তের হার কমেছে। যার যার বাড়ি আর আঙিনা পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করলেই দ্রুত এটি নির্মূল হয়ে যাবে।

হাসপাতালে পৌঁছে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নেন। এ সময় তিনি চিকিৎসক ও নার্সদের বিভিন্ন নির্দেশনা দেন।

এর আগে মন্ত্রী মানিকগঞ্জ পৌরসভার ডেঙ্গু নিধন ক্রাশ প্রোগ্রামের উদ্বোধন করেন।

এ সময় অন্যদের মধ্যে মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসক (ডিসি) এসএম ফেরদৌস, পুলিশ সুপার (এসপি) রিফাত রহমান শামীম, সিভিল সার্জন আনোয়ারুল আমিন আকন্দ ও পৌর মেয়র গাজী কামরুল হুদা সেলিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্তের হার কমেছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

 যুগান্তর রিপোর্ট 
০৫ আগস্ট ২০১৯, ০২:৫৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।
সোমবার মানিকগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের খবর নিচ্ছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্তের হার আগের থেকে কমেছে। ডেঙ্গু প্রতিরোধে সারা দেশে সামাজিক আন্দোলন শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

সোমবার দুপুরে মানিকগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের দেখতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, সারা দেশে ডেঙ্গু প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলন শুরু হয়েছে। তাই ডেঙ্গুর সার্বিক পরিস্থিতি আগের চেয়ে অনেক ভালো।

ঈদের সময় সরকারি হাসপাতালের মতো বেসরকারি হাসপাতালেও ডেঙ্গু চিকিৎসাসেবা অব্যাহত রাখার আহ্বান জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

মন্ত্রী বলেন, সবার প্রচেষ্টা এবং সচেতনতার কারণে ডেঙ্গু আক্রান্তের হার কমেছে। যার যার বাড়ি আর আঙিনা পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করলেই দ্রুত এটি নির্মূল হয়ে যাবে।

হাসপাতালে পৌঁছে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীদের শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নেন। এ সময় তিনি চিকিৎসক ও নার্সদের বিভিন্ন নির্দেশনা দেন। 

এর আগে মন্ত্রী মানিকগঞ্জ পৌরসভার ডেঙ্গু নিধন ক্রাশ প্রোগ্রামের উদ্বোধন করেন।

এ সময় অন্যদের মধ্যে মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসক (ডিসি) এসএম ফেরদৌস, পুলিশ সুপার (এসপি) রিফাত রহমান শামীম, সিভিল সার্জন আনোয়ারুল আমিন আকন্দ ও পৌর মেয়র গাজী কামরুল হুদা সেলিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন