সেতুর জন্য জাসদ ছেড়ে আ’লীগে যোগ দেবেন এমপি বাদল!

  যুগান্তর রিপোর্ট ১০ আগস্ট ২০১৯, ১০:২৮ | অনলাইন সংস্করণ

চট্টগ্রাম-৮ আসনের সংসদ সদস্য মইন উদ্দীন খান বাদল।
চট্টগ্রাম-৮ আসনের সংসদ সদস্য মইন উদ্দীন খান বাদল। ছবি: সংগৃহীত

কালুরঘাট সড়ক কাম রেলসেতু নির্মাণের জন্য এবার নিজ দল জাসদ ছেড়ে প্রয়োজনে আওয়ামী লীগে যোগ দিতেও রাজি বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম-৮ আসনের সংসদ সদস্য মইন উদ্দীন খান বাদল।

শুক্রবার চট্টগ্রাম ক্লাবে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এ ঘোষণা দেন আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোটের শরিক দল জাসদের এই নেতা।

জাতীয় সংসদে এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে ব্যক্তিগতভাবে একাধিকবার বলার পরও কালুরঘাটে কর্ণফুলী নদীর ওপর সড়কসহ রেলসেতুর নির্মাণকাজ শুরু না হওয়ায় হতাশা প্রকাশ করে তিনি বলেন, আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে কালুরঘাটে সেতু নির্মাণের পরিণতি না দেখলে ‘আসসালামু আলাইকুম’ বলে সংসদ থেকে বেরিয়ে যাব।

মইন উদ্দীন খান বাদল বলেন, কালুরঘাট সেতুটি তার নির্বাচনী এলাকায় পড়েছে। দক্ষিণ চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারের সঙ্গে যোগাযোগের ক্ষেত্রে এই সেতু গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। জরাজীর্ণ হয়ে পড়ায় সেতুটি দিয়ে ট্রেন ও যানবাহন চলাচল ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে। দীর্ঘদিন ধরে কালুরঘাট সেতু নির্মাণের দাবি জানিয়ে আসছেন এ অঞ্চলের মানুষ।

মইন উদ্দীন খান বাদল বলেন, সংসদে গত ১০ বছর কালুরঘাট সেতুর কথা বলে আসছি। কিন্তু কী কারণে এ প্রকল্প হাতে নেয়া হচ্ছে না, তা আমার অজানা। এটা চট্টগ্রামের প্রতি বৈষম্যমূলক আচরণ।

তিনি আরও বলেন, টানেল, জলাবদ্ধতা প্রকল্প, ফ্লাইওভারসহ পুরো চট্টগ্রামে হাজার হাজার কোটি টাকার প্রকল্প হচ্ছে, অথচ হচ্ছে না কেবল কালুরঘাট সেতু। চট্টগ্রামের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ এই সেতু প্রকল্পের জন্য সরকারের খরচ হবে ৩৩৯ কোটি টাকা।

কোরিয়ান একটি কোম্পানি সমীক্ষা চালিয়ে দেখেছে, রেল কাম সড়ক সেতুটির নির্মাণ ব্যয় হবে প্রায় ১ হাজার ২শ’ কোটি টাকা।

এর মধ্যে ৮০০ কোটি টাকা কোরিয়া দেবে বলেছে। বাকিটা বাংলাদেশ সরকারকে দিতে হবে। এরপরও এই সেতু হচ্ছে না।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×