পিতলের পুতুলকে স্বর্ণ বানানো ৪ জিনের বাদশা গ্রেফতার!
jugantor
পিতলের পুতুলকে স্বর্ণ বানানো ৪ জিনের বাদশা গ্রেফতার!

  মাগুরা প্রতিনিধি  

২১ আগস্ট ২০১৯, ২২:৫১:২২  |  অনলাইন সংস্করণ

পিতলের পুতুলকে স্বর্ণ বানানো ৪ জিনের বাদশা গ্রেফতার

মাগুরার শালিখা উপজেলায় পিতলের পুতুলকে সোনার পুতুল বানানোর কথা বলে প্রতারণা করা একটি চক্রের চার সদস্যকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তারা বিভিন্ন সময় নিজেদের জিনের বাদশা পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করত।

শালিখা থানা পুলিশের হাতে গ্রেফতার ওই চার প্রতারক হচ্ছে টগর মোল্লা, বাবার আলী, আরিফ ও আব্দুল গনি। তাদের বাড়ি শালিখা উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে।

তারা নিজেদের জিনের বাদশা পরিচয় দিয়ে পিতলের পুতলকে সোনার মূর্তি বলে বিক্রি করে দীর্ঘদিন ধরে মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছে। এ ঘটনায় গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে শালিখা থানায় মামলা হয়েছে।

চক্রটির সঙ্গে মাগুরা ছাড়াও ফরিদপুর এবং রাজবাড়ির একটি চিহ্নিত প্রতারক চক্র জড়িত রয়েছে বলে পুলিশের কাছে খবর রয়েছে। ওই চক্রের অন্যান্যদের সম্পর্কে তথ্য উদ্ধারে পুলিশ জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

শালিখা থানার ওসি তরীকুল ইসলাম বলেন, প্রতারক চক্রের চারজনকে আটক করা গেলেও এর সঙ্গে আরও অনেকে জড়িত রয়েছে। সংঘবদ্ধ চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে মাগুরা ছাড়াও পার্শ্ববর্তী অন্যান্য জেলায়ও তাদের প্রতারণা চালিয়ে আসছে। বিশেষ করে লোভী শ্রেণির কিছু মানুষকে তারা নিজেদের চাতুরির মাধ্যমে প্রলুব্ধ করে তোলে।

একটি পিতলের পুতুলের একটি অংশে স্বর্ণের ধাতু যুক্ত করে তারা পুরো পুতুলটিকে সোনার পুতুলে রূপান্তরের ক্ষমতা রাখে এমন কথা বলে স্থানীয় সাধারণ মানুষকে প্রভাবিত করে। পরে ওই পুতুল বিক্রির মাধ্যমে মানুষকে ঠকিয়ে থাকে।

মঙ্গলবার শালিখা উপজেলার সীমাখালি এলাকার একটি পরিবারের সঙ্গে একইভাবে প্রতারণা চালাতে গেলে ওই চার প্রতারক পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি পুতুল উদ্ধার করা হয়েছে বলে ওসি জানান।

মাগুরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তারিকুল আলম বলেন, এই চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা চালিয়ে আসছে। বুধবার তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করে ৫ দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে। তাদেরকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা গেলে এই প্রতারক চক্রের সঙ্গে জড়িত অন্যান্যদের আটক করা সম্ভব হবে।

পিতলের পুতুলকে স্বর্ণ বানানো ৪ জিনের বাদশা গ্রেফতার!

 মাগুরা প্রতিনিধি 
২১ আগস্ট ২০১৯, ১০:৫১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
পিতলের পুতুলকে স্বর্ণ বানানো ৪ জিনের বাদশা গ্রেফতার
পিতলের পুতুলকে স্বর্ণ বানানো ৪ জিনের বাদশা গ্রেফতার

মাগুরার শালিখা উপজেলায় পিতলের পুতুলকে সোনার পুতুল বানানোর কথা বলে প্রতারণা করা একটি চক্রের চার সদস্যকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তারা বিভিন্ন সময় নিজেদের জিনের বাদশা পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করত।

শালিখা থানা পুলিশের হাতে গ্রেফতার ওই চার প্রতারক হচ্ছে টগর মোল্লা, বাবার আলী, আরিফ ও আব্দুল গনি। তাদের বাড়ি শালিখা উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে।

তারা নিজেদের জিনের বাদশা পরিচয় দিয়ে পিতলের পুতলকে সোনার মূর্তি বলে বিক্রি করে দীর্ঘদিন ধরে মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছে। এ ঘটনায় গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে শালিখা থানায় মামলা হয়েছে।

চক্রটির সঙ্গে মাগুরা ছাড়াও ফরিদপুর এবং রাজবাড়ির একটি চিহ্নিত প্রতারক চক্র জড়িত রয়েছে বলে পুলিশের কাছে খবর রয়েছে। ওই চক্রের অন্যান্যদের সম্পর্কে তথ্য উদ্ধারে পুলিশ জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

শালিখা থানার ওসি তরীকুল ইসলাম বলেন, প্রতারক চক্রের চারজনকে আটক করা গেলেও এর সঙ্গে আরও অনেকে জড়িত রয়েছে। সংঘবদ্ধ চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে মাগুরা ছাড়াও পার্শ্ববর্তী অন্যান্য জেলায়ও তাদের প্রতারণা চালিয়ে আসছে। বিশেষ করে লোভী শ্রেণির কিছু মানুষকে তারা নিজেদের চাতুরির মাধ্যমে প্রলুব্ধ করে তোলে।

একটি পিতলের পুতুলের একটি অংশে স্বর্ণের ধাতু যুক্ত করে তারা পুরো পুতুলটিকে সোনার পুতুলে রূপান্তরের ক্ষমতা রাখে এমন কথা বলে স্থানীয় সাধারণ মানুষকে প্রভাবিত করে। পরে ওই পুতুল বিক্রির মাধ্যমে মানুষকে ঠকিয়ে থাকে।

মঙ্গলবার শালিখা উপজেলার সীমাখালি এলাকার একটি পরিবারের সঙ্গে একইভাবে প্রতারণা চালাতে গেলে ওই চার প্রতারক পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি পুতুল উদ্ধার করা হয়েছে বলে ওসি জানান।

মাগুরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তারিকুল আলম বলেন, এই চক্রটি দীর্ঘদিন ধরে সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা চালিয়ে আসছে। বুধবার তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করে ৫ দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে। তাদেরকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা গেলে এই প্রতারক চক্রের সঙ্গে জড়িত অন্যান্যদের আটক করা সম্ভব হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন