শ্রীপুরে জব্দ করা মোটরসাইকেল থানা থেকে চুরি!

  গাজীপুর প্রতিনিধি ২২ অগাস্ট ২০১৯, ২২:৫৫:২২ | অনলাইন সংস্করণ

থানা থেকে চুরি হওয়া সেই মোটরসাইকেল

প্রায় আড়াই মাস আগে শ্রীপুর পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর মোস্তফা কামালের ব্যবহৃত নাম্বারবিহীন একটি মোটরসাইকেল নিয়ে মাওনা-চৌরাস্তা এলাকায় যান তার ভাতিজা (ভায়রার ছেলে)।

নম্বর না থাকায় মোটরসাইকেলটি জব্দ করে শ্রীপুর থানায় নিয়ে যান এএসআই লাক মিয়া ও আনোয়ার হোসেন। থানা থেকে সেই মোটরসাইকেলটি চুরি হয়ে যায়।

শ্রীপুর থানার পরিদর্শক (অপারেশন) মো. আক্তার হোসেন বলেন, বৃহস্পতিবার সকালে বাইকটির প্রকৃত মালিক মোস্তফা কামাল তার গাড়িটি ছাড়িয়ে নিতে থানায় যান। এ সময় মোটরসাইকেলটি থানা ক্যাম্পাসে যথাস্থানে পাওয়া যায়নি।

তিনি জানান, বাইকটির মালিক মোস্তাফা বৃহস্পতিবার দুপুরে স্থানীয় কর্নপুর এলাকার সুজনকে তার অপর দুই সঙ্গীসহ মোটরসাইকেলটি চালিয়ে যেতে দেখে পুলিশকে জানান। পরে পুলিশ গিয়ে শ্রীপুর মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী কলেজ গেট এলাকা থেকে খোয়া যাওয়া ওই মোটরসাইকেলসহ কর্নপুর এলাকার সুজন (২২), শ্রীপুর পৌর এলাকার সবুজ (২৩) ও সাঈদকে (২২) আটক করে।

আক্তার হোসেন বলেন, বেশ কিছুদিন আগে এএসআই লাক মিয়া ও আনোয়ার হোসেন নম্বরবিহীন ওই মোটরসাইকেল জব্দ করে থানায় নিয়ে রাখে। পরে সুজন থানা ক্যাম্পাস থেকে মোটরসাইকেলটির ডুপ্লিকেট চাবি বানিয়ে কৌশলে নিয়ে গেছে। এরপর আর তা থানায় নিয়ে আসেনি সুজন।

এ ব্যাপারে সুজন পুলিশের কাছে স্বীকারোক্তি দিয়েছে। সুজন ওই থানার এসআই মোস্তাফিজুর রহমানের ব্যক্তিগত গাড়িচালক। তবে থানার কোনো গাড়ি চালাতো না সুজন।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত