জনরোষ থেকে বাঁচতে নৌকা নিয়ে চেয়ারম্যানের পলায়ন

  কিশোরগঞ্জ ব্যুরো ও কটিয়াদী প্রতিনিধি ২৩ আগস্ট ২০১৯, ০২:১১ | অনলাইন সংস্করণ

জনরোষ
ছবি: যুগান্তর

কিশোরগঞ্জ ও নরসিংদী জেলার সীমান্তবর্তী পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদ ও আড়িয়াল খাঁ নদীর অংশ বিশেষে পুনঃখনন কাজের পরামর্শ সভা ক্ষতিগ্রস্থ ক্ষুব্ধ এলাকাবাসীর হামলায় পণ্ড হয়ে গেছে।

এ সময় ক্ষুব্ধ জনতা লাঠিসোঁটা ও চেয়ার নিয়ে হামলা চালালে মনোহরদী উপজেলার কৃষ্ণপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এমদাদুল হক ভূঁইয়া এবং সাবেক ইউপি সদস্য শওকত আলী আহত হন।

জনতার রোষ থেকে বাঁচতে শেষ পর্যন্ত ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এমদাদ একটি ইঞ্জিন চালিত নৌকায় ওঠে পালিয়ে যান। নৌকায় ওঠার সময়ও তার ওপর হামলা চালায় বিক্ষুব্ধ জনতা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ব্রহ্মপুত্র নদী পাড়ে কটিয়াদী উপজেলার লোহাজুরি ইউনিয়নের পূর্বচর পাড়াতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পরামর্শ সভায় আগত পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আবদুর রউফ মণ্ডল, উপসহকারী প্রকৌশলী ফরিদুল এরশাদ, সহকারী প্রকৌশলী সমির চন্দ্র পাল উপজেলা চেয়ারম্যানের গাড়িতে ওঠে অনুষ্ঠানস্হল ত্যাগ করে কোনরকমে প্রাণে রক্ষা পান।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, নদী ভাঙ্গনের ফলে নদীর গতিপথ পরিবর্তিত হয়ে বর্তমানে সাধারণ নাগরিকের বসতবাড়ি ও ফসলের জমি দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এ কারণে বাস্তুভিটা হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে দেশান্তরী হয়েছে এলাকার অনেক পরিবার।

এ কারণে তাদের দাবি, প্রকৃত নকশা এবং সিএস ও বিএস রেকর্ড ধরে প্রকৃত নদীপথ খননের। কিন্তু, স্হানীয় কৃষ্ণপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান-মেম্বারদের সহায়তায় নদী ভাঙ্গনের পরিবর্তিত গতিপথ ধরে সাধারণ জনতার জমির ওপর দিয়ে নদী খনন কাজ শুরু করার চেষ্টার অভিযোগ এলাকাবাসীর।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×