সিলেটে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত

প্রকাশ : ২৪ আগস্ট ২০১৯, ১১:২৪ | অনলাইন সংস্করণ

  জকিগঞ্জ প্রতিনিধি ও সিলেট ব্যুরো

ছবি: যুগান্তর

সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক যুবক নিহত হয়েছেন। 

পুলিশের দাবি, নিহত ব্যক্তি ডাকাত দলের সদস্য, তার বিরুদ্ধে সিলেটের বিভিন্ন থানায় ডাকাতি ও অস্ত্র মামলা রয়েছে। এ ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। 

শুক্রবার দিবাগত রাতে উপজেলার মরিচা এলাকায় এ ‘বন্দুকযুদ্ধ’ ঘটে। 

নিহত আবদুস শহীদ ওরফে ফুলু (২৩) মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা থানার ধর্মদিহী গ্রামের মৃত নানু মিয়ার ছেলে।

যুগান্তরকে বিষয়টি জকিগঞ্জ থানার ওসি মীর মো. আবদুল নাসের নিশ্চিত করেছেন। 

তিনি বলেন, মরিচা এলাকার প্রবাসী আবদুল করিমের বাড়িতে গভীর রাতে ডাকাতি হচ্ছে এমন খবর পেয়ে রাত সোয়া ১টার দিকে পুলিশ সেখানে উপস্থিত হয়। এসময় ডাকাত দলের সঙ্গে পুলিশের বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। 

পুলিশ ৫২ রাউন্ড গুলি ছুড়ে। এতে এক ডাকাত সদস্য নিহত হয়। বাকি আট-নয় ডাকাত পালিয়ে যায়। 

রাত পৌনে ২টায় স্থানীয়দের সহযোগিতায় শহিদের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত শহীদের বিরুদ্ধে সিলেট জেলার কানাইঘাট, বিয়ানীবাজার, গোলাপগঞ্জ, বালাগঞ্জ ও মোগলাবাজার থানায় ডাকাতি, ডাকাতির প্রস্তুতি ও অস্ত্র আইনে ৬টি মামলা রয়েছে। 

তিনি বলেন, ‘বন্দুকযুদ্ধের’ সময় এসআই কল্লোল, এসআই জহিরুল ও এএসআই জিয়া আহত হয়েছেন। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তারা মোটামুটি সুস্থ আছেন। এছাড়া ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে বলে ওসি জানান। 

এরআগে, গত ২৭ জুন শহীদকে সিলেট শহর থেকে ডিবি পুলিশের একটি দল গ্রেফতার করেছিল। 

শনিবার সকালে সাড়ে ১০টার দিকে নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। 

শহিদের নিজ থানা মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখায় যোগাযোগ করা হয়েছে। পরিবারের সদস্যরা এলে ময়নাদন্ত শেষে তার মরদেহ নিয়ে যেতে পারবেন বলেও জানান ওসি।