ঈশ্বরগঞ্জে বৃদ্ধার বাড়ি দখল করলেন যুবলীগ নেতা

প্রকাশ : ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২০:৪৯ | অনলাইন সংস্করণ

  ময়মনসিংহ ব্যুরো

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে দাদনের ফাঁদে ফেলে এক অসহায় বৃদ্ধার বসতঘর ও জমি জবরদখল করে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে তারুন্দিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক এনামুল হকের বিরুদ্ধে।

একই সঙ্গে আদালতে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলা দিয়ে নানাভাবে হয়রানি ও হুমকি দিচ্ছে।

সোমবার দুপুরে এ ঘটনার বিচার দাবি করে পুলিশ সুপার বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করেছেন ভুক্তভোগী নারী মোছা. ছাহেরা খাতুন (৭৫) ও এলাকাবাসী।

অভিযোগে জানা গেছে, পরিবারের অগোচরে ছাহেরা খাতুনের পুত্র ইদ্রিস মিয়াকে (৩০) কিছুদিন আগে ৬০ হাজার টাকা দাদন দেয় যুবলীগ নেতা এনামুল। এখন ওই টাকার সুদ বাবদ ৩ লাখ ৫৫ হাজার টাকা দাবি করে ইদ্রিস মিয়ার কাছ থেকে জোরপূর্বক এনামুল হক তার এক নিকট আত্মীয়ের নামে সাড়ে ১৫ শতাংশ জমি রেজিস্ট্রি দলিল করে নেয়।

একই দাগে ছাহেরা খাতুনের নামে ৫ শতাংশ জমির উপর ৪২ হাত লম্বা একটি হাফ বিল্ডিং বসতঘর রয়েছে। বিগত প্রায় এক মাস আগে যুবলীগ নেতা এনামুলের নেতৃত্বে সহযোগীদের নিয়ে সন্ত্রাসী কায়দায় ওই বৃদ্ধ নারীকে মারধর করে বসতঘরে তালা ঝুলিয়ে দেয়।

এ নিয়ে কয়েকদফা সালিশ-দরবার হলেও প্রভাবশালী হওয়ায় কোনো সুরাহা হয়নি। এ ব্যাপারে বিষয়টি ঈশ্বরগঞ্জ থানা পুলিশকে লিখিতভাবে অভিযোগ করা হলে পুলিশ এখন পর্যন্ত মামলা নেয়নি। তবে ৩১ আগস্ট বসতঘরের তালা খুলে দেয় পুলিশ।

এ দিকে ঘটনার সঙ্গে জড়িত নন দাবি করে ১০নং তারুন্দিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক জানান, স্থানীয় একজনের সঙ্গে ওই নারীর জমি-বাড়ি নিয়ে বিরোধ চলছে।

এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন জানান, বিষয়টি তদন্তের জন্য অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শাকের হোসেন সিদ্দিকীকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। ওই নারীর যাতে কোনো সমস্যা না হয়, সে ব্যাপারে সহযোগিতা করবে পুলিশ।