বিএসএফের হাতে ধরিয়ে দেয়ায় বন্ধুর হাতে বন্ধু খুন

প্রকাশ : ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২১:৫১ | অনলাইন সংস্করণ

  দিনাজপুর প্রতিনিধি

আসামি সুমন ও আকবর আলী। ছবি: যুগান্তর

দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে বিএসএফের হাতে ধরিয়ে দেয়ার জেরে জাকি ইমরান (১৯) নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার বন্ধুর বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় পুলিশ তার ২ বন্ধুকে আটক করেছে। 

ভারতে অবৈধ অনুপ্রবেশের পর সেদেশের আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে ধরিয়ে দেয়ার আক্রোশে দুই বন্ধু জাকি ইমরানকে হত্যা করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। 

বুধবার বিকাল ৪টার দিকে দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার উত্তর বাংলাপাড়া গ্রামে এই হত্যার ঘটনা ঘটে। 

নিহত নিহত জাকি ইমরান নীলফামারী জেলার সৈয়দপুর উপজেলার হাওলাদার পাড়া এলাকার মোহাম্মদ তেলির ছেলে। 

চিরিরবন্দর থানার ওসি মাহবুবুর রহমান জানান, বুধবার বিকালে জাকি ইমরান তার ২ বন্ধু সুমন ও আকবর আলীকে নিয়ে চিরিরবন্দর উপজেলার উত্তর বাংগালপাড়ায় নানার বাড়িতে বেড়াতে আসেন। সেখানে আসার পর বাড়ির পার্শ্ববর্তী ধানক্ষেতে সুমন ও আকবর আলী ধারালো ছুরি দিয়ে কুপিয়ে জাকি ইসলামকে গুরুতর আহত করে। 

পরে পুলিশ ও স্থানীয়রা জাকি ইমরানকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে চিরিরবন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। 

ওসি মাহবুবুর রহমান জানান, চার বছর আগে ৩ বন্ধু জাকি ইমরান, সুমন ও আকবর অবৈধ পথে ভারতের মুর্শিদাবাদে যায়। সেখানে ভারতের আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে সুমন ও আকবর আটক হলেও পালিয়ে আসে জাকি ইমরান। 

সুমন ও আকবরের ধারণা জাকি ইমরান তাদের ভারতের আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে ধরিয়ে দিয়েছে। এই থেকেই জাকি ইমরানকে হত্যার পরিকল্পনা করে ওই দুই বন্ধু। 

ভারতে চার বছর কারাভোগের পর মুক্ত হয়ে সম্প্রতি বাংলাদেশে ফিরে জাকি ইমরানের ওপর প্রতিশোধ নেয়ার চেষ্টা করে দুই বন্ধু। এরই জের ধরে জাকি ইমরানকে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ।