টেকনাফে আটকের পর ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা যুবক নিহত
jugantor
টেকনাফে আটকের পর ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা যুবক নিহত

  টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি  

১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৩:৩৪:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

টেকনাফে আটকের পর ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা যুবক নিহত

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় আটকের পর পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক রোহিঙ্গা যুবক নিহত হয়েছেন। নিহতের নাম হাবিব উল্লাহ প্রকাশ হাবিরান (৪০)।

পুলিশের দাবি, নিহত হাবিব উল্লাহ রোহিঙ্গা ডাকাত। তিনি নয়াপাড়া মোচনী ক্যাম্পের আলী আহম্মদের ছেলে।

শনিবার রাত ১টার দিকে হ্নীলা ইউনিয়নের পশ্চিমপাশে গহীন পাহাড়ে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, চিহ্নিত রোহিঙ্গা ডাকাত হাবিরানকে রাত ৮টার দিকে আটক করা হয়।

পরে তার স্বীকারোক্তিমতে মোচনীর পাহাড়ে আরও বিপুল পরিমাণ অস্ত্র মজুদ রয়েছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযানে যায়। এ সময় সশস্ত্র ডাকাত দল পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে।

এতে দুই এসআই সুজিত দে ও মশিউর আহত হন। জানমাল রক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। বেশ কিছুক্ষণ গুলিবিনিময়ের পর ডাকাত দল পিছু হটে।

ঘটনাস্থল হতে দুটি এলজি ১০ রাউন্ড তাজা কার্টুজসহ গুলিবিদ্ধ হাবিব উল্লাহকে উদ্ধার করা হয়। তাকে টেকনাফ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক হাবিব উল্লাহকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। সেখানেই তিনি মারা যান।

আহত দুই এসআই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়েছেন। পাশাপাশি এ ঘটনায় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান ওসি।

টেকনাফে আটকের পর ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা যুবক নিহত

 টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি 
১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০১:৩৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
টেকনাফে আটকের পর ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা যুবক নিহত
ছবি: যুগান্তর

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় আটকের পর পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক রোহিঙ্গা যুবক নিহত হয়েছেন। নিহতের নাম হাবিব উল্লাহ প্রকাশ হাবিরান (৪০)।

পুলিশের দাবি, নিহত হাবিব উল্লাহ রোহিঙ্গা ডাকাত।  তিনি নয়াপাড়া মোচনী ক্যাম্পের আলী আহম্মদের ছেলে। 

শনিবার রাত ১টার দিকে হ্নীলা ইউনিয়নের পশ্চিমপাশে গহীন পাহাড়ে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। 

টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, চিহ্নিত রোহিঙ্গা ডাকাত হাবিরানকে রাত ৮টার দিকে আটক করা হয়। 

পরে তার স্বীকারোক্তিমতে মোচনীর পাহাড়ে আরও বিপুল পরিমাণ অস্ত্র মজুদ রয়েছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযানে যায়। এ সময় সশস্ত্র ডাকাত দল পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। 

এতে দুই এসআই সুজিত দে ও মশিউর আহত হন। জানমাল রক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। বেশ কিছুক্ষণ গুলিবিনিময়ের পর ডাকাত দল পিছু হটে। 

ঘটনাস্থল হতে দুটি এলজি ১০ রাউন্ড তাজা কার্টুজসহ গুলিবিদ্ধ হাবিব উল্লাহকে উদ্ধার করা হয়। তাকে টেকনাফ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক হাবিব উল্লাহকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। সেখানেই তিনি মারা যান। 

আহত দুই এসআই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়েছেন। পাশাপাশি এ ঘটনায় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান ওসি।

 

ঘটনাপ্রবাহ : মাদকবিরোধী অভিযানে নিহত

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন