ইতালি যাওয়ার পথে সাগরে নিহত সায়েম-সেলিমের লাশ ফরিদপুরে

  ফরিদপুর ব্যুরো ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২২:২৫ | অনলাইন সংস্করণ

সেলিমের লাশ সালথায় পৌঁছালে স্বজনদের আহাজারি
সেলিমের লাশ সালথায় পৌঁছালে স্বজনদের আহাজারি

মানব পাচার চক্রের প্রলোভনে লিবিয়া থেকে ইতালিতে যাওয়ার পথে মারা গেছেন ফরিদপুরের তিনজন।

নিহতরা হলেন- ফরিদপুর শহরের সায়েম মোল্লা ও জেলার সালথা উপজেলার সেলিম ও সানি।

নিহতের মধ্যে সায়েম ও সেলিমের লাশ রোববার ফরিদপুরে এসে পৌঁছলে স্বজনদের আহাজারিতে এলাকার পরিবেশ ভারি হয়ে উঠে।

নিহতের স্বজনেরা প্রতারকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন।

নিহতদের পরিবার জানায়, ফরিদপুর শহরের ডোমরাকান্দি এলাকার ইতালি প্রবাসী মফিজুর রহমান ফরিদপুরের সদর উপজেলার বিল্লাল মোল্যার পুত্র সায়েম মোল্যা ও সালথা উপজেলার মাঝারদিয়া ইউনিয়নের আব্দুল আলিমের পুত্র সেলিম ও সানিকে ইতালির একটি ইলেকট্রনিক্স কোম্পানিতে ৮০ হাজার টাকা বেতনে কাজের প্রলোভন দেখায়।

ইতালি পাঠানোর কথা বলে প্রত্যেকের কাছ থেকে ৭ লাখ টাকা নেয়া হয়। গত ১০ মে প্রতারক মফিজুর রহমান টুরিস্ট ভিসায় বাংলাদেশ থেকে লিবিয়ায় নিয়ে যায় তাদের। এরপর ৩ জুন লিবিয়া থেকে সমুদ্রপথে নৌকাযোগে ইতালি রওনা হয় তারা।

ওই সময়ে ইতালি যাওয়ার পথে মোবাইলে তারা জানায়, একটি নৌকাযোগে লিবিয়া থেকে সমুদ্রপথে ইতালি রওয়ানা হয়েছেন। এরপর থেকে তাদের সঙ্গে আর যোগাযোগ ছিল না বলে জানায় পরিবারের সদস্যরা।

পরবর্তী সময়ে পরিবারগুলোর প্রবাসীদের মাধ্যমে জানতে পারে এ ৩ জনের মৃত্যুর খবর। রোববার সকালে নিহত সায়েম মোল্লা ও সেলিমের লাশ ফরিদপুর শহরে ও সালথা উপজেলার মাঝারদিয়া গ্রামের বাড়িতে এসে পৌঁছলে পরিবারের মাঝে নেমে আসে শোকের ছায়া।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×