প্রধান শিক্ষকের নির্দেশ পালন করতে গিয়ে শতাধিক ছাত্রী অজ্ঞান!
jugantor
প্রধান শিক্ষকের নির্দেশ পালন করতে গিয়ে শতাধিক ছাত্রী অজ্ঞান!

  সাটুরিয়া (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি  

১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৭:২৯:৩০  |  অনলাইন সংস্করণ

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন দরগ্রাম উচ্চবিদ্যালয়ের ছাত্রীরা

প্রধান শিক্ষকের নির্দেশে মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় খেলার মাঠে ঘাস কাটতে গিয়ে শতাধিক শিক্ষার্থী অজ্ঞান হয়ে যায় বলে জানা গেছে। আহতদের প্রায় সবাই ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির ছাত্রী।

বুধবার সকালে উপজেলার দরগ্রাম উচ্চবিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের সাটুরিয়া সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

শিক্ষার্থীদের দিয়ে জোর করে খেলার মাঠে ঘাস কাটানোর অভিযোগ উঠেছে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে। এতে স্কুল ও কলেজের শিক্ষার্থী, অভিভাবকসহ স্থানীয়রা বিক্ষোভে ফেটে পড়েন।

ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. সিদ্দিকুর রহমানকে কক্ষে তালাবদ্ধ করে রেখে বিক্ষোভ মিছিল করে রাস্তা অবরোধ করv nq। পরে পুলিশ ও উপজেলা প্রশাসন তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়ে পরিবেশ শান্ত করে।

শিক্ষার্থীরা হিটস্ট্রোকে আক্রান্ত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা দেন সাটুরিয়া হাসপাতালের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. মামুনউর রশিদ।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা চেয়ারম্যান, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, স্থানীয় আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন ব্যক্তি হাসপাতালে সুচিকিৎসার খোঁজ-খবর নিয়েছেন।

প্রধান শিক্ষকের নির্দেশ পালন করতে গিয়ে শতাধিক ছাত্রী অজ্ঞান!

 সাটুরিয়া (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি 
১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৫:২৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন দরগ্রাম উচ্চবিদ্যালয়ের ছাত্রীরা
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন দরগ্রাম উচ্চবিদ্যালয়ের ছাত্রীরা

প্রধান শিক্ষকের নির্দেশে মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় খেলার মাঠে ঘাস কাটতে গিয়ে শতাধিক শিক্ষার্থী অজ্ঞান হয়ে যায় বলে জানা গেছে। আহতদের প্রায় সবাই ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণির ছাত্রী।

বুধবার সকালে উপজেলার দরগ্রাম উচ্চবিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের সাটুরিয়া সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

শিক্ষার্থীদের দিয়ে জোর করে খেলার মাঠে ঘাস কাটানোর অভিযোগ উঠেছে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে। এতে স্কুল ও কলেজের শিক্ষার্থী, অভিভাবকসহ স্থানীয়রা বিক্ষোভে ফেটে পড়েন।

ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. সিদ্দিকুর রহমানকে কক্ষে তালাবদ্ধ করে রেখে বিক্ষোভ মিছিল করে রাস্তা অবরোধ করv nq। পরে পুলিশ ও উপজেলা প্রশাসন তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়ে পরিবেশ শান্ত করে।

শিক্ষার্থীরা হিটস্ট্রোকে আক্রান্ত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা দেন সাটুরিয়া হাসপাতালের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. মামুনউর রশিদ।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা চেয়ারম্যান, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা,  স্থানীয় আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন ব্যক্তি হাসপাতালে সুচিকিৎসার খোঁজ-খবর নিয়েছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন