নরসিংদীতে মদপানে ২ যুবকের মৃত্যু
jugantor
নরসিংদীতে মদপানে ২ যুবকের মৃত্যু

  নরসিংদী প্রতিনিধি  

২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২২:১৬:৪৯  |  অনলাইন সংস্করণ

মদপান

নরসিংদীর শিবপুরে বিষাক্ত মদপান করে দুই যুবকের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তাদের মৃত্যু হয়।

নিহতরা হলেন- শিবপুর উপজেলার দুলালপুর ইউনিয়নের দড়িপুর গ্রামের আজাদ মিয়ার ছেলে শাকিল (২২)। তিনি স্থানীয় একটি ওর্য়াকসপে কাজ করতেন। অপরজন বাঘাবো গ্রামের কবির মিয়ার ছেলে সুমন মিয়া (২২)। তিনি স্থানীয় বালু মহালের শ্রমিক।

পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার রাতে নিহত শাকিল ও সুমনসহ ৫-৬ জন বন্ধুরা নরসিংদী পৌর শহরের বাজির মোড় এলাকা থেকে মদ কিনে আনেন। পরে সেই মদ পান করলে তাদের শারীরিক অবস্থার কিছুটা অবনতি হয়। মদপান শেষে তারা ঘুমিয়ে পড়েন।

কিন্তু একদিন পার হলেও তাদের ঘুম ভাঙেনা। শনিবার তাদের বহু ডাকাডাকির পর সজাগ হলেও তারা মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেন। ওই সময় তাদের প্রচণ্ড পেটে ব্যাথা ও জ্বালাপোড়া শুরু হয়। অবস্থার অবনতি হলে শনিবার সন্ধ্যায় তাদের শিবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়।

পরে সেখান থেকে ডাক্তার তাদের নরসিংদী হাসপাতালে প্রেরণ করে। অবস্থার অবনতি হলে জেলা হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাদের ঢাকায় প্রেরণ করেন। ঢাকায় নেয়ার পথে তাদের মৃত্যু হয়।

নরসিংদী জেলা হাসপাতালের আবাসিক কর্মকর্তা (আরএমও) বলেন, বিকালে শাকিল ও সুমনকে অচেতন অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। কোনো প্রকার রেসপন্স পাচ্ছিলাম না। পরে তাদের ঢাকায় প্রেরণ করা হয়।

শিবপুর থানার ওসি মোল্লা আজিজুর রহমান তাদের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

নরসিংদীতে মদপানে ২ যুবকের মৃত্যু

 নরসিংদী প্রতিনিধি 
২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১০:১৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মদপান
মদপান। প্রতীকী ছবি

নরসিংদীর শিবপুরে বিষাক্ত মদপান করে দুই যুবকের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তাদের মৃত্যু হয়। 

নিহতরা হলেন- শিবপুর উপজেলার দুলালপুর ইউনিয়নের দড়িপুর গ্রামের আজাদ মিয়ার ছেলে শাকিল (২২)। তিনি স্থানীয় একটি ওর্য়াকসপে কাজ করতেন। অপরজন বাঘাবো গ্রামের কবির মিয়ার ছেলে সুমন মিয়া (২২)। তিনি স্থানীয় বালু মহালের শ্রমিক।

পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার রাতে নিহত শাকিল ও সুমনসহ ৫-৬ জন বন্ধুরা নরসিংদী পৌর শহরের বাজির মোড় এলাকা থেকে মদ কিনে আনেন। পরে সেই মদ পান করলে তাদের শারীরিক অবস্থার কিছুটা অবনতি হয়। মদপান শেষে তারা ঘুমিয়ে পড়েন। 

কিন্তু একদিন পার হলেও তাদের ঘুম ভাঙেনা। শনিবার তাদের বহু ডাকাডাকির পর সজাগ হলেও তারা মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেন। ওই সময় তাদের প্রচণ্ড পেটে ব্যাথা ও জ্বালাপোড়া শুরু হয়। অবস্থার অবনতি হলে শনিবার সন্ধ্যায় তাদের শিবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। 

পরে সেখান থেকে ডাক্তার তাদের নরসিংদী হাসপাতালে প্রেরণ করে। অবস্থার অবনতি হলে জেলা হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাদের ঢাকায় প্রেরণ করেন। ঢাকায় নেয়ার পথে তাদের মৃত্যু হয়। 

নরসিংদী জেলা হাসপাতালের আবাসিক কর্মকর্তা (আরএমও) বলেন, বিকালে শাকিল ও সুমনকে অচেতন অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। কোনো প্রকার রেসপন্স পাচ্ছিলাম না। পরে তাদের ঢাকায় প্রেরণ করা হয়।

শিবপুর থানার ওসি মোল্লা আজিজুর রহমান তাদের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন