কেনাকাটা করে বেয়াই বাড়ি যাওয়া হল না কৃষক হাসিমুদ্দিনের
jugantor
কেনাকাটা করে বেয়াই বাড়ি যাওয়া হল না কৃষক হাসিমুদ্দিনের

  মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি  

২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২৩:০৯:৪৫  |  অনলাইন সংস্করণ

সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল কৃষক হাসিমুদ্দিনের

নেত্রকোনার মদনে কেনাকাটা করে বাড়ি ফেরা হল না কৃষক হাসিমুদ্দিনের (৫০)।

রোববার সকালে বেয়াই বাড়ি ফেরার পথে চলন্ত রিকশা থেকে রাস্তায় লুটিয়ে পড়ে তার মৃত্যু হয়েছে।

নিহত হাসিমুদ্দিন খালিয়াজুরী উপজেলার আসাদপুর গ্রামের মৃত সোনা মিয়ার ছেলে।

জানা যায়, শনিবার আটপাড়া উপজেলার কুলশ্রী গ্রামে বেয়াই জাহেদ মিয়ার বাড়িতে বেড়াতে আসেন হাসিমুদ্দিন। রোববার সকালে মদনের এক মার্কেটে কেনাকাটা শেষে কুলশ্রী যাওয়ার উদ্দেশে রওনা হলে সুখারী নামক স্থানে হঠাৎ রিকশা থেকে পড়ে যান তিনি।

লোকজন তাকে আহত অবস্থায় মদন হাসপাতালে নিয়ে এলে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার আব্বাস উদ্দিন তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের ছেলে শিহাবুল ইসলাম জানায়, বাবার সঙ্গে আমিও একই রিকশায় ছিলাম। মদন থেকে রিকশাযোগে কুলশ্রী যাওয়ার পথে সুখারী নামক স্থানে পৌঁছলে হঠাৎ বাবা চলন্ত রিকশা থেকে মাটিতে পড়ে যান। মদন হাসপাতালে নিয়ে আসলে ডাক্তার বাবাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ব্যাপারে মদন থানার ওসি মো. রমিজুল হক জানান, ঘটনাটি যেহেতু আটপাড়া উপজেলায় তাই ওই থানার পুলিশকে জানানো হয়েছে।

কেনাকাটা করে বেয়াই বাড়ি যাওয়া হল না কৃষক হাসিমুদ্দিনের

 মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি 
২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১১:০৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল কৃষক হাসিমুদ্দিনের
সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল কৃষক হাসিমুদ্দিনের

নেত্রকোনার মদনে কেনাকাটা করে বাড়ি ফেরা হল না কৃষক হাসিমুদ্দিনের (৫০)।

রোববার সকালে বেয়াই বাড়ি ফেরার পথে চলন্ত রিকশা থেকে রাস্তায় লুটিয়ে পড়ে তার মৃত্যু হয়েছে।

নিহত হাসিমুদ্দিন খালিয়াজুরী উপজেলার আসাদপুর গ্রামের মৃত সোনা মিয়ার ছেলে।

জানা যায়, শনিবার আটপাড়া উপজেলার কুলশ্রী গ্রামে বেয়াই জাহেদ মিয়ার বাড়িতে বেড়াতে আসেন হাসিমুদ্দিন। রোববার সকালে মদনের এক মার্কেটে কেনাকাটা শেষে কুলশ্রী যাওয়ার উদ্দেশে রওনা হলে সুখারী নামক স্থানে হঠাৎ রিকশা থেকে পড়ে যান তিনি।

লোকজন তাকে আহত অবস্থায় মদন হাসপাতালে নিয়ে এলে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার আব্বাস উদ্দিন তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের ছেলে শিহাবুল ইসলাম জানায়, বাবার সঙ্গে আমিও একই রিকশায় ছিলাম। মদন থেকে রিকশাযোগে কুলশ্রী যাওয়ার পথে সুখারী নামক স্থানে পৌঁছলে হঠাৎ বাবা চলন্ত রিকশা থেকে মাটিতে পড়ে যান। মদন হাসপাতালে নিয়ে আসলে ডাক্তার বাবাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ব্যাপারে মদন থানার ওসি মো. রমিজুল হক জানান, ঘটনাটি যেহেতু আটপাড়া উপজেলায় তাই ওই থানার পুলিশকে জানানো হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন