ফরিদপুরে ভ্যানচালক হত্যায় ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড

  ফরিদপুর ব্যুরো ১০ অক্টোবর ২০১৯, ১২:৪৮ | অনলাইন সংস্করণ

ফরিদপুরে ভ্যানচালক হত্যায় ৭ জনের মৃত্যুদণ্ড
ছবি: যুগান্তর

ফরিদপুরের ভাঙ্গায় ট্রাকচালক কেরামত হাওলাদার (৩৫) হত্যা মামলায় ফরিদপুরের জেলা ও দায়রা জজ আদালত সাতজনকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন। এ সময় প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার সময় ফরিদপুরের বিজ্ঞ জেলা ও দায়রা জজ মো. সেলিম মিয়ার আদালত এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় সাত আসামির মধ্যে পাঁচজন আদালতে উপস্থিত ছিলেন। অন্য দুই আসামি পলাতক ছিলেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, আবদুল মোল্যার ছেলে তোফা মোল্যা (২৬), আবদুল মান্নান ফকিরের ছেলে পলাশ ফকির (৩২), শামসুল হক খালাসির পুত্র সিদ্দিক খালাসি (৩৬), আব্দুল মালেক মাতুব্বরের ছেলে এরশাদ মাতুব্বর (৩২), মৃত মোসলেমের ছেলে সুরুজ ওরফে সিরাজুল খাঁ (২৭), আবদুল মালেক মাতুব্বরের ছেলে নাইম মাতুব্বর (৩৫), গিয়াস উদ্দিনের ছেলে আনু মোল্যা ওরফে আনোয়ার মোল্যা (২৮)। এদের সবার বাড়ি ভাঙ্গা উপজেলার চান্দ্রা গ্রামে। এদের মধ্যে নাইম মাতুব্বর ও সুরুজ ওরফে সিরাজুল পলাতক রয়েছে।

জজকোর্টের পিপি (ভারপ্রাপ্ত) অ্যাডভোকেট দুলাল চন্দ্র সরকার সাংবাদিকদের বলেন, ২০১৪ সালের ১৪ ডিসেম্বর রাতে ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার উত্তর লোহারদিয়া গ্রামের পিকআপ (ছোট ট্রাক) চালক কেরামত হাওলাদার নিখোঁজ হন। পর দিন ভোরে পার্শ্ববর্তী সলিলদিয়া দীঘলকান্দা বিলের ভেতর থেকে কেরামতের গলা ও পেট কাটা মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত কেরামত হাওলাদার জেলার ভাঙ্গা উপজেলার উত্তর লোহার গ্রামের মৃত শামসুল হাওলাদারের ছেলে।

এ ঘটনায় ১৫ ডিসেম্বর মৃত কেরামতের ভাই ইকরাম হাওলাদার বাদী হয়ে ভাঙ্গা থানায় মামলা করেন।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×