ঝিনাইদহে ২ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

আ’লীগ-বিএনপির জয়-পরাজয়ে জামায়াত ফ্যাক্ট

  কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ১২:৫৪ | অনলাইন সংস্করণ

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শান্তিপূর্ণভাবে চলছে।
ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শান্তিপূর্ণভাবে চলছে। ছবি: যুগান্তর

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর ও মহেশপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শান্তিপূর্ণভাবে চলছে।

সোমবার সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ চলবে।

এ দুই উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি প্রার্থীদের মধ্যে ভোটযুদ্ধ চলছে। দুদলই জয়ের জন্য মরিয়া। কিন্তু এই দুই উপজেলায় জয়-পরাজয়ে জামায়াতের ভোট ফ্যাক্ট হয়ে দাঁড়াবে বলে মনে করছেন এলাকাবাসী।

জানা গেছে, গত উপজেলা নির্বাচনে দুটি উপজেলাতেই জামায়াত প্রার্থীরা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন। এবার জামায়াত প্রার্থী দেয়নি, তবে জামায়াতের ভোটাররা বিএনপি প্রার্থীদের ভোট দেবে বলে নির্বাচনী পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন। এই দুই উপজেলায় জামায়াতের প্রচুর ভোটার রয়েছেন।

এদিকে নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে ফেলা হয়েছে দুই উপজেলা। এবার কোটচাঁদপুর উপজেলায় ইভিএম মেশিনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কোটচাঁদপুর উপজেলায় মোট ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৮ হাজার ৮৮২ জন। ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ৫৩টি। এ উপজেলায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে আওয়ামী লীগ প্রার্থী শরিফুন্নেছা মিকি ও বিএনপি প্রার্থী মো. আবদুর রাজ্জাকের মধ্যে। চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী আছেন খায়রুল হোসেন সাথী। এ উপজেলায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে নিমাই দে, মো. আবদুল করিম, মো. আবুল কালাম আজাদ, মো. বিয়াজ হোসেন, মো. রেজাউল ইসলাম, মো. রোস্তম আলী ও শরিফুল ইসলাম এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নাসিমা ইসলাম, পিংকী খাতুন ও রুবিনা খাতুন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

মহেশপুর উপজেলায় মোট ভোটার ২ লাখ ৫২ হাজার ৯১ জন। ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১১২টি। এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের ময়জদ্দীন হামিদ ও বিএনপির প্রার্থী এসএম শাহজামানের মধ্যে ভোটযুদ্ধ হবে।

এ উপজেলাতেও জয়-পরাজয়ের ক্ষেত্রে জামায়াত ফ্যাক্ট। গত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জামায়াত প্রার্থী উপজেলার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন। চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী মীর সুলতানুজ্জামান লিটনও মাঠে আছেন।

এ ব্যাপারে ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার মো. হাসানুজ্জামান বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করার জন্য পুলিশ বিভাগের পক্ষ থেকে কঠোর নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। নির্বাচন উপলক্ষে ৯০৩ পুলিশ সদস্য, ৫ প্লাটুন বিজিবি ১৪টি র‌্যাবের টহল দল ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে স্টাইকিং ফোর্স নিয়োজিত থাকবে।

এ উপজেলায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে মো. আজিজুল হক, মো. তরিকুল ইসলাম, মো. বিল্লাল হোসাইন, মো. মনিরুল ইসলাম, মো. রফিকুল ইসলাম ও হালদার এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ইসরাত জাহান, নাছরীন সুলতানা, রেহেনা খাতুন, শামীমা সুলতানা ও হাসিনা খাতুন হেনা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদিকে নির্বাচন উপলক্ষে প্রশাসনের পক্ষ থেকে কঠোর নিরাপত্তাব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×