চালক ছাড়া ট্রেন, পাকশী বিভাগীয় অফিস ঘিরে আলোচনা

প্রকাশ : ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ২১:৫৭ | অনলাইন সংস্করণ

  ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি

চালক ছাড়াই ঈশ্বরদী থেকে রাজশাহী যাওয়া ট্রেনটির ঘটনায় রেলওয়ের পাকশী বিভাগীয় কার্যালয় এলাকায় দিনব্যাপী ছিল আলোচনা-সমালোচনা।

‘নিজের দায়িত্ব পালন না করা এই ট্রেনের চালক আসলাম উদ্দিন খান মিলন ঈশ্বরদী রেলওয়ে শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক হওয়ায় তাকে ঘিরে সমালোচনা এখন তুঙ্গে। বর্তমানে চলমান দুর্নীতিবিরোধী অভিযানের সময়ও এ ধরনের অবহেলা সংশ্লিষ্ট সবাইকে বিস্মিত করেছে।’

এই কথাগুলো বলেছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জাতীয় শ্রমিক লীগের সিনিয়র তিনজন নেতা।

রোববার চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটেছে ঈশ্বরদী-পাবনা-রাজশাহী রেলপথে। এ ঘটনায় দায়ী তিনজনকে তাৎক্ষণিকভাবে সাসপেন্ড করেছে রেলওয়ের পাকশী বিভাগীয় কর্তৃপক্ষ।

তারা হলেন- ঈশ্বরদী রেলওয়ে শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পাবনা এক্সপ্রেস ট্রেনের চালক লোকোমাস্টার (এলএম) আসলাম উদ্দিন খান মিলন, শ্রমিক লীগের একই কমিটির যুগ্ম-সম্পাদক ও ওই ট্রেনের সহকারী লোকোমাস্টার (এএলএম) আহসান উদ্দিন আশা এবং ট্রেনের পরিচালক (গার্ড) আনোয়ার হোসেন-২।

এদিকে পাবনা এক্সপ্রেস ট্রেনে নিয়মিত রাজশাহী যাতায়াতকারী ব্যবসায়ী বোরহান উদ্দিন, শিক্ষক আজিজুর রহমান, রাজশাহী কলেজের ছাত্র রাজিব ফেরদৌস জানান, এভাবে দায়িত্বে অবহেলার ঘটনায় ট্রেনটি কোনো দুর্ঘটনার শিকার হতে পারত। আমরা এখন কিছুটা টেনশনে যাতয়াত করছি।