লোহাগড়ায় জনযুদ্ধের নামে ২০ কলেজ শিক্ষকের কাছে চাঁদা দাবি

  লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি ২১ অক্টোবর ২০১৯, ২২:৫৭ | অনলাইন সংস্করণ

লোহাগড়া সরকারি আদর্শ কলেজ
লোহাগড়া সরকারি আদর্শ কলেজ

নড়াইলের লোহাগড়া সরকারি আদর্শ কলেজের ২০ জন শিক্ষকের কাছে বিপ্লবী কমিউনিস্ট পার্টি এমএল (জনযুদ্ধ) পরিচয়ে চাঁদা দাবি করা হয়েছে।

চাঁদার টাকা না দিলে তাদের হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে।

সোমবার কলেজ চলাকালীন এ সব শিক্ষকের কাছে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে এই চাঁদা দাবি ও হত্যার হুমকি দেয়া হয়।

এ ঘটনায় আতঙ্কে আছেন এ সব শিক্ষক ও তাদের পরিবারের সদস্যরা।

জানা গেছে, সোমবার কলেজ চলাকালে মোবাইল নম্বর থেকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ পদার্থ বিজ্ঞানের শিক্ষক আকবর আহম্মদ, ইতিহাসের শিক্ষক মো. কবির হোসেন, হিসাববিজ্ঞানের শিক্ষক কাজী সোহেল রানা, বাংলার শিক্ষক পিজুষ কান্তি রায়, কৃষিশিক্ষা বিষয়ের শিক্ষক মুন্সী ওবায়দুর রহমান, রাষ্ট্রবিজ্ঞানের শিক্ষক মো. খায়রুজ্জামান, ইংরেজির শিক্ষক মোল্যা জাহিদুল ইসলামসহ ২০ জন শিক্ষকের কাছে জনযুদ্ধের পরিচয়ে চাঁদা দাবি করা হয়েছে।

উক্ত টাকা অল্প সময়ের মধ্যে বিকাশ নম্বরে দেয়ার কথা বলা হয়েছে। কিছু শিক্ষক এ ঘটনার প্রতিবাদ করলে মোবাইল ফোনে ওই শিক্ষকদের অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ এবং পরিবারের সদস্যদের জীবনাশের হুমকি দেয়া হয়েছে।

এ ঘটনার পরপরই আতঙ্কিত শিক্ষকরা হুমকির বিষয়টি নড়াইল জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মাদ জসিম উদ্দিনকে মোবাইল ফোনে অবহিত করেন। এ ঘটনায় আতঙ্কিত শিক্ষকরা লোহাগড়া থানায় সাধারণ ডায়েরি দায়ের করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে যুগান্তরকে জানিয়েছেন।

কলেজের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান মো. তারেক আলম বলেন, সোমবার কলেজ চলাকালে সাড়ে ১১টার দিকে একটি অপরিচিত নম্বর থেকে ব্যক্তিগত মোবাইল ফোনে কল দিয়ে টাকা দাবিসহ অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করা হয়।

এ ব্যাপারে নড়াইল জেলার পুলিশ সুপার মোহাম্মাদ জসিম উদ্দিন বলেন, বিষয়টি শিক্ষকদের মাধ্যমে অবগত হয়েছি। তদন্ত করে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উল্লেখ্য, একইভাবে গত শনিবার ও রোববার নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ ও সরকারি মহিলা কলেজের ২৩ জন শিক্ষকের নিকট চাঁদা চেয়ে হত্যার হুমকি দেয়া হয়।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×