টাঙ্গাইলে অবহেলায় প্রসূতির মৃত্যু, শাশুড়ি গ্রেফতার

প্রকাশ : ০৮ নভেম্বর ২০১৯, ২০:২৪ | অনলাইন সংস্করণ

  ভূঞাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি

টাঙ্গাইলে ভূঞাপুরে শাশুড়ির অবহেলায় চর ভরুয়া গ্রামের লিপি খাতুন (২৫) নামে এক প্রসূতির মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় শাশুড়িকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

জানা গেছে, লিপি খাতুন উপজেলার চর ভরুয়া গ্রামের আবু সামার ছেলে শাহজামালের ৪ বছর পূর্বে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। এ বিয়ে শাশুড়ি মন থেকে মেনে নেয়নি। বিয়ের পর থেকেই সংসারে বিভিন্ন সময় শাশুড়ির সঙ্গে চলত ঝগড়া-বিবাদ।

এরই মাঝে লিপির গর্ভে সন্তান আসার পর থেকেই শাশুড়ির খারাপ আচরণের মাত্রা আরও বেড়ে যায়। বৃহস্পতিবার লিপির প্রসব ব্যাথা হলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি না করে বাড়িতেই তার একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়।

এই সময় তার শরীর থেকে প্রচুর পরিমাণে রক্তক্ষরণ হলে তার শাশুড়ি ভূঞাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। কর্তব্যরত ডাক্তার তার অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। কিন্তু সেখানে না নিয়ে আবারো ভূঞাপুর হাসপাতাল থেকে ১৫ কিলোমিটার দূরে  গ্রামের বাড়ি বড়ুয়ায় নিয়ে যায়। সেখানে অবস্থা আরও খারাপ হয়। পরে টাঙ্গাইল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথেই লিপির মৃত্যু হয়।

শাশুড়ির অবহেলায় মৃত্যু হয়েছে এই অভিযোগ এনে লিপির বাবা আবদুল মান্নান বাদী হয়ে শুক্রবার তিনজনকে আসামি করে ভূঞাপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনায় শাশুড়ি শাহিদা ওরফে শাহিনুরকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ভূঞাপুর থানার এসআই সামছুল ইসলাম জানান, শুক্রবার সকালে আসামি শাশুড়ি শাহিদাকে গ্রেফতার করা হয়। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট আসলে মামলার বিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনি পদক্ষেপ নেয়া হবে। অন্যান্য আসামিদের গ্রেফতারের প্রক্রিয়া চলছে।