ভোলায় বিভিন্ন কেন্দ্রে আশ্রয় নিয়েছে ২ লক্ষাধিক মানুষ

  ভোলা প্রতিনিধি ০৯ নভেম্বর ২০১৯, ২০:০৩ | অনলাইন সংস্করণ

ভোলায় বিভিন্ন কেন্দ্রে আশ্রয় নিয়েছে ২ লক্ষাধিক মানুষ
ছবি: যুগান্তর

ভোলায় ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাত থেকে রক্ষায় ৬৬৮টি সাইক্লোন সেল্টারসহ ১৬শ একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কেন্দ্রে আশ্রয় নিয়েছে দুই লাখ ১২ হাজার, ৮শ মানুষ।

শনিবার বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিভিন্ন চরাঞ্চলের মানুষকে এসব আশ্রয় কেন্দ্রে আনা হয়। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদ আলম ছিদ্দিক প্রেসব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন।

জেলা প্রশাসক জানান, সরকারিভাবে ১০ লাখ টাকা, চাল ও শুকনো খাবার, রান্না খাবার বিতরণ কার্যক্রম চলছে। শুক্রবার রাত থেকে মানুষ আশ্রয় কেন্দ্রে আসতে শুরু করেছে।

মনপুরা থেকে স্কুল শিক্ষক আব্দুল্লাহ জুয়েল জানান, মনপুরায় সকালে বৃষ্টি কম থাকায় অনেকে নদীতে মাছ ধরতে যায়। বিষয়টি জেলা প্রশাসককে জানালে তিনি দ্রুত কোস্টগার্ড বাহিনী দিয়ে ওই সব জেলেদের পাড়ে আসতে বাধ্য করেন।

এদিকে পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী বাবুল আক্তার জানান, জোয়ারে পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। রাতের জোয়ারের সময় ঝড় থাকলে জলোচ্ছাস হওয়ার সম্ভাববনা থাকবে। সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বৃস্টি ও বাতাস বাড়তে শুরু করেছে। তবে মেঘনা নদীর পাড়ে বাতাসের বেগ অনেকাংশে বেড়ে যাওয়ায় নদী উত্তাল হয়ে পড়েছে।

ঢেউ পাড়ে আচড়ে পড়তে থাকে। নদীতে যারা মাছ ধরছিল, তারা ঝুকি নিয়ে ফেরতে শুরু করে।

রেডক্রিসেন্ট ও সিপিপি কর্মীরা সবাইকে নিরাপদে আশ্রয় কেন্দ্রে যেতে মাইকিং অব্যাহত রেখেছেন। ইসলামী ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে সকল মসজিদেও মাইকেও একই প্রচার করা হয়।

এ দিকে গরু-ছাগল, হাসমুরগী রেখে চরের অনেক পরিবার সাইক্লোন সেল্টারে যেতে যাচ্ছে না। ওই সব পরিবারকে জোরপূর্বক পুলিশ দিয়ে ঘর ছাড়তে বাধ্য করা হচ্ছে বলেও জেলা প্রশাসক জানান।

জেলা প্রশাসনের পাশাপাশি জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃত্বেও টিম গঠন করাও মানুষদের নিরাপদে আনতে অভিযান শুরু করে। মাইকিং করার পাশাপাশি তারাও খাবার বিতরণ করাসহ বিভিন্ন কাজ করছেন বলে জানান, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মইনুল হোসেন বিপ্লব।

তিনি জানান সাবেক শিল্প ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের নির্দেশে জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ কর্মীরা নদীর পাড়সহ বিভিন্ন এলাকায় মানুষের পাশে থেকে কাজ করছে।

ঘটনাপ্রবাহ : ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল

আরও
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×