ট্রেন দুর্ঘটনা: মানুষ মানুষের জন্য

  সাব্বির আহমেদ সুবীর, বাঞ্ছারামপুর প্রতিনিধি ১২ নভেম্বর ২০১৯, ২২:২৫ | অনলাইন সংস্করণ

আহত যাত্রীরা
আহত যাত্রীরা। ছবি: যুগান্তর

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার মন্দবাগ স্টেশনে দুর্ঘটনার পর থেকেই এগিয়ে আসেন স্থানীয় লোকজন। ভোর থেকেই মসজিদের মাইকে সহযোগিতায় এগিয়ে আসার জন্য সবার কাছে আহ্বান জানানো হয়। শুরুতে স্টেশনের সামনে থাকা পিকআপ ভ্যান দিয়ে আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে নেয়া হয়।

রেললাইনের পার্শ্ববর্তী চান্দখোলা গ্রামের মো. সালাম বলেন, ‘বিকট শব্দে ঘুম ভাঙলে স্টেশনের দিকে ছুটে আসি। বাপ্পীসহ আরও কয়েকজনের পিকআপ ভ্যানে করে আহতদের হাসপাতালে পাঠাই।’

চারুয়া গ্রামের মো. আলমগীর হোসেন জানান, এলাকার অনেক লোকজন উদ্ধার কাজে সহায়তা করেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে সরকারি অ্যাম্বুলেন্সের পাশাপাশি বেসরকারিভাবে চালিত বেশ কয়েকটি অ্যাম্বুলেন্স ঘটনাস্থলে যায়।

বায়েক সরকারি উচ্চবিদ্যালয় মাঠে গিয়ে দেখা যায়, সেখানে কসবা উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে দুর্ভোগের শিকার যাত্রীদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এ ছাড়া যাত্রীদের চলাচলের জন্য পর্যাপ্ত পরিবহনের ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে।

আহতদের রক্তদানের জন্য ছুটে এসেছেন অনেকেই। ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির মো. শাহ আলম জানান, তাদের পক্ষ থেকে ১২ জনকে রক্ত দেয়া হয়েছে। সংস্কৃতিকর্মী আব্দুল বাছির দুলাল জানান, তিনি এক বৃদ্ধকে রক্ত দিয়েছেন।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাওয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক হায়ত-উদ-দৌলা খান বলেন, ‘দুর্ঘটনার পর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতার চেষ্টা চালানো হয়।’

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনিসুর রহমান জানান, উদ্ধার কাজসহ অন্যান্য বিষয়ে তদারকি করে পুলিশ।

সিভিল সার্জন ডা. মো. শাহ আলম জানান, তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থলে পাঁচটি মেডিকেল টিম পাঠানো হয়। এ ছাড়া হাসপাতালগুলোতে সর্বাত্মক সেবাদানের নির্দেশনা দেয়া হয়।

ফায়ার সার্ভিসের এসআই মো. নুরুল ইসলাম জানান, ট্রেনের ভেতর থেকে বেশ কয়েকটি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

কসবা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট রাশেদুল কায়সার ভূঁইয়া জানান, কসবার স্থানীয় সংসদ সদস্য আইনমন্ত্রী আনিসুল হকের নির্দেশনায় তারা দুর্গতদের সার্বিক সহযোগিতা করে যাচ্ছেন।

ঘটনাপ্রবাহ : ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রেন দুর্ঘটনা

আরও
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×