কোম্পানীগঞ্জে স্পিরিট পানে মৃতদের মধ্যে ৪ জনের লাশ তোলা হচ্ছে

  কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ২৩:৫৮ | অনলাইন সংস্করণ

নোয়াখালী

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় বসুরহাট বাজারে রফিক হোমিও হল নামের দোকান থেকে স্পিরিট পান করে ৪ জনের মৃত্যুর ঘটনায় ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ দাফন করা হয়।

ঘটনার ৪৬ দিন পর ওই ৪ জনের লাশ কবর থেকে উত্তোলন করে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

নোয়াখালী জেলা ম্যাজিস্ট্রেট তন্ময় দাস লাশ উত্তোলনের নির্দেশ দেন।

এ জন্য জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও নোয়াখালী জেলা প্রশাসক তার কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. রোকনুজ্জামান খানকে নিয়োগ দিয়েছেন।

লাশ উত্তোলন বিষয়ে নোয়াখালীর পুলিশ সুপার, সিভিল সার্জন, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার, নোয়াখালীর নেজারত ডেপুটি কালেক্টর এবং কোম্পানীগঞ্জ থানার এসআই শিশির কুমার বিশ্বাসকে অবগতি ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুলিপি প্রেরণ করেছেন জেলা প্রশাসক।

যে ৪ জনের লাশ উত্তোলন করা হবে তারা হচ্ছেন, রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফনসম্পন্ন হওয়া চরকাঁকড়া গ্রামের মৃত আবদুল আজিজের ছেলে মুক্তিযোদ্ধা আবদুল খালেক (৭০), সিরাজপুর গ্রামের রইসুল হকের ছেলে সবুজ (৪৫), মোহাম্মদ নগর গ্রামের ফয়েজ আহম্মদের ছেলে ড্রাইভার মইন উদ্দিন (৪০) এবং বসুরহাট পৌরসভা ৮নং ওয়ার্ডের মৃত আবদুর রহমানের ছেলে রাইটার ওমর ফারুক লিটন (৫০)।

প্রসঙ্গত, গত ২৬ সেপ্টেম্বর রাতে বসুরহাট পৌরসভার রফিক হোমিও হল থেকে রেকটিফায়েড স্পিরিট ক্রয় করে (নেশা হিসেবে) পান করেন নুরনবী মানিক, ওমর ফারুক লিটন, রবি লাল দে, মো. সবুজ, মহিন উদ্দিন ড্রাইভার ও মুক্তিযোদ্ধা আবদুল খালেক। তারা সবাই মারা যান।

তাদের মধ্যে নুরনবী মানিক ও রবি লাল দে'র লাশের ময়নাতদন্ত শেষে দাফন ও সৎকার করা হয়েছিল। অপর ৪ জনের ময়নাতদন্ত ছাড়াই দাফন করায় আদালতের নির্দেশে তাদের লাশ উত্তোলন করার আদেশ দিয়েছেন আদালত।

স্পিরিট পানে ৬ জনের মৃত্যুর ঘটনায় রফিক হোমিও হলের মালিক কথিত হোমিও ডাক্তার সৈয়দ জাহেদ উল্যাহ ও তার ছেলে সৈয়দ মিজানুর রহমান প্রিয়ম নোয়াখালী কারাগারে আটক রয়েছেন।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×