সেতু নির্মাণ কাজের রড চুরি করে হাতেনাতে ধরা ইউপি সদস্য

  যুগান্তর রিপোর্ট, তাহিরপুর ২০ নভেম্বর ২০১৯, ০২:১২ | অনলাইন সংস্করণ

ইউপি সদস্য ফরিদুল ইসলাম কুটি
ইউপি সদস্য ফরিদুল ইসলাম কুটি। ছবি -যুগান্তর

‘চোর শুনে না ধর্মের কাহিনী, এ প্রবাদবাক্য যে সত্যি তার প্রমাণ দিয়েছেন সুনামগঞ্জের দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার দরগাপাশা ইউনিয়ন পরিষদের ফরিদুল ইসলাম কুটি নামে এক ইউপি সদস্য।

তাইতো আবারও সেতু নির্মাণে রাখা বিপুল পরিমাণ রড চুরি করে ওই ইউপি সদস্য ও তার অপর এক সহযোগী বর্তমানে শ্রীঘরে রয়েছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, অতীতে ফরিদুল ইসলাম কুটি এলাকার চিহ্নিত চোর ছিলেন। তার কারণে অতিষ্ট হয়ে পড়েছিল এলাকাবাসী। চুরি থেকে স্বাভাবিক জীবনে ফিরবেন ওয়াদা করে মো. ফরিদুল ইসলাম কুটি দক্ষিণ সুনামগঞ্জের দরগাপাশা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৩নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য পদে নির্বাচিত হন।

কিন্তু জনপ্রতিনিধি হওয়ার পরও অতীতের চুরির অভ্যাস যায়নি তার। সম্প্রতি পাগলা-জগন্নাথপুর-আউশকান্দি সড়কে সেতু নির্মাণ কাজে রাখা এক ঠিকাধারী প্রতিষ্ঠানের রাখা বিপুল পরিমাণে রড ফরিদুল ইসলাম কুটি ও তার কয়েকজন সহযোগী কয়েক ধাপে চুরি করে নিয়ে যান।

এ ঘটনায় ঠিকাধারী প্রতিষ্ঠান দক্ষিন সুনামগঞ্জ থানায় সাধারণ ডায়েরি করলে পুলিশ বৃহস্পতিবার রাতে জগন্নাথপুর এলাকা থেকে মো. ফরিদুল ইসলাম কুটি ও তার সহযোগী সিএনজি চালক দেলোয়ার হোসেনকে ২শ কেজি রডসহ আটক করেন।

এরপর শনিবার আরো ৩শ কেজি রড উদ্ধার করা হয়।

রোববার আবারও ইউপি সদস্যের বাড়ির আশপাশের ডোবা থেকে ৩টন রড উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় ঠিকাধারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন।

দক্ষিন সুনামগঞ্জের দারগাপাশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনির উদ্দিন বলেন, কথায় আছে না চোরে শুনে না ধর্মের কাহিনি! ওই ইউপি সদস্য আসলে প্রবাদের কথাটি সত্যি তাই প্রমাণ করেছেন, ওই ইউপি সদস্য চুরির দায়ে জেল হাজতে থাকাটা আমাদের পরিষদের জন্য এবং ওই ওয়ার্ডের সম্মানিত ভোটারদের জন্য লজ্জার।

তিনি বলেন, অতীতেও তার বিরুদ্ধে বহু চুরির অভিযোগ ছিল। তাকে ভালো পথে আনতে মানুষ ভোট দিয়ে ইউপি সদস্য নির্বাচিত করেছিল কিন্তু তার চরিত্র সংশোধন করতে পারেনি।

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার এসআই জয়নাল আবেদীন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিপুল পরিমাণ চুরি হওয়া ইউপি সদস্য রডসহ ফরিদুল ইসলাম কুটি হাতেনাতে আটক করা হয়।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×