নেত্রকোনায় ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দিয়ে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা
jugantor
নেত্রকোনায় ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দিয়ে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা

  গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি  

২৮ নভেম্বর ২০১৯, ১৯:৫২:১৬  |  অনলাইন সংস্করণ

ট্রেন
ট্রেন। ফাইল ছবি

নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলায় ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দিয়ে রিনা আক্তার (১৭) নামে এক কলেজছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। বৃহস্পতিবার পূর্বধলার তারাকান্দা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

এ ছাড়া এই দিনেই অমিত হাসান (১৬) নামে এক কিশোরের ঝুলন্ত লাশ মেঘশিমূল পশ্চিমপাড়া এলাকা থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ছাড়াও দত্তকুনিয়া গ্রামে তানিশা আক্তার লামিয়া (৩) নামের এক শিশু পানিতে ডুবে মারা যায়। 

পুলিশ জানায়, গৌরীপুর-জারিয়া রেলপথের পূর্বধলা উপজেলার তারাকান্দা এলাকায় ময়মনসিংহগামী জারিয়া ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায় রিনা আক্তার। সে জারিয়া ইউনিয়নের মানুষউড়া গ্রামের মৃত জালাল উদ্দিনের কন্যা। পূর্বধলা সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী। 

পূর্বধলা রেল স্টেশনের বুকিং সহকারী মো. আব্দুল মোমেন জানান, জারিয়া থেকে ময়মনসিংহগামী ২৭২নং আপ ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিলে তার মৃত্যু হয়।  

গৌরীপুর রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির (আইসি) ইনচার্জ কার্তিক চন্দ্র রায় বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি। তদন্ত চলছে।

এ দিকে উপজেলার ঘাগড়া ইউনিয়নের মেঘশিমূল পশ্চিমপাড়া গ্রামের কামাল মিয়ার পুত্র অমিত হাসান নিজ ঘরে আড়ার সঙ্গে ফাঁসিতে ঝুলে মারা যায়। তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পূর্বধলা থানা পুলিশ। 

পরিবারের দাবি, অমিত দীর্ঘদিন যাবৎ মানসিক ভারসাম্যহীনভাবে চলাফেরা করছিল। 

পূর্বধলা থানার অফিসার ইনচার্জ তাওহীদুর রহমান জানান, পরিবারের লোকজনের আবেদনের প্রেক্ষিতে লাশ ময়নাতদন্ত ছাড়াই পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। 

অপরদিকে উপজেলায় ধলামূলগাঁও ইউনিয়নের দত্তকুনিয়া গ্রামের কামাল মিয়ার কন্যা তানিশা আক্তার লামিয়া পরিবারের লোকজনের অজান্তে পুকুরে পড়ে যায়। দীর্ঘক্ষণ খোঁজাখুঁজির পর পুকুর থেকে তাকে উদ্ধার করে। 

পূর্বধলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মো. হাবিবুর রহমান তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নেত্রকোনায় ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দিয়ে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা

 গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি 
২৮ নভেম্বর ২০১৯, ০৭:৫২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ট্রেন
ট্রেন। ফাইল ছবি

নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলায় ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দিয়ে রিনা আক্তার (১৭) নামে এক কলেজছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। বৃহস্পতিবার পূর্বধলার তারাকান্দা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ছাড়া এই দিনেই অমিত হাসান (১৬) নামে এক কিশোরের ঝুলন্ত লাশ মেঘশিমূল পশ্চিমপাড়া এলাকা থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ছাড়াও দত্তকুনিয়া গ্রামে তানিশা আক্তার লামিয়া (৩) নামের এক শিশু পানিতে ডুবে মারা যায়।

পুলিশ জানায়, গৌরীপুর-জারিয়া রেলপথের পূর্বধলা উপজেলার তারাকান্দা এলাকায় ময়মনসিংহগামী জারিয়া ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায় রিনা আক্তার। সে জারিয়া ইউনিয়নের মানুষউড়া গ্রামের মৃত জালাল উদ্দিনের কন্যা। পূর্বধলা সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী।

পূর্বধলা রেল স্টেশনের বুকিং সহকারী মো. আব্দুল মোমেন জানান, জারিয়া থেকে ময়মনসিংহগামী ২৭২নং আপ ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিলে তার মৃত্যু হয়।

গৌরীপুর রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির (আইসি) ইনচার্জ কার্তিক চন্দ্র রায় বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি। তদন্ত চলছে।

এ দিকে উপজেলার ঘাগড়া ইউনিয়নের মেঘশিমূল পশ্চিমপাড়া গ্রামের কামাল মিয়ার পুত্র অমিত হাসান নিজ ঘরে আড়ার সঙ্গে ফাঁসিতে ঝুলে মারা যায়। তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পূর্বধলা থানা পুলিশ।

পরিবারের দাবি, অমিত দীর্ঘদিন যাবৎ মানসিক ভারসাম্যহীনভাবে চলাফেরা করছিল।

পূর্বধলা থানার অফিসার ইনচার্জ তাওহীদুর রহমান জানান, পরিবারের লোকজনের আবেদনের প্রেক্ষিতে লাশ ময়নাতদন্ত ছাড়াই পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।

অপরদিকে উপজেলায় ধলামূলগাঁও ইউনিয়নের দত্তকুনিয়া গ্রামের কামাল মিয়ার কন্যা তানিশা আক্তার লামিয়া পরিবারের লোকজনের অজান্তে পুকুরে পড়ে যায়। দীর্ঘক্ষণ খোঁজাখুঁজির পর পুকুর থেকে তাকে উদ্ধার করে।

পূর্বধলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মো. হাবিবুর রহমান তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন