শৈত্যপ্রবাহে দুর্ভোগে সৈয়দপুরের ছিন্নমূল মানুষ

  সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি ১৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ২১:৫৬:৩৮ | অনলাইন সংস্করণ

আগুন জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা

পৌষ এলেও নেই সে রোদমাখা দিন। তার সঙ্গে বয়ে চলছে ‘উত্তরা বাতাস’। মৃদু শৈত্যপ্রবাহের কারণে কনকনে বাতাসে কাঁপছে সৈয়দপুরবাসী। আর শীত সবচেয়ে বেশি পড়ছে নীলফামারীর সৈয়দপুরে।

এখানকার মানুষ দিনেও মোটা কাপড় ছাড়া বের হতে পারছেন না। হঠাৎ চলে আসা এই ঠাণ্ডা অনুভূতিতে মানিয়ে নিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে মানুষকে।

হঠাৎ করে ঠাণ্ডার এ আক্রমণে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন অনেকে। বিশেষ করে শিশু ও বৃদ্ধরা আক্রান্ত হচ্ছেন নানা রোগে। সবচেয়ে কষ্টে পড়েছেন ছিন্নমূল ও খেটে খাওয়া মানুষেরা।

শহরের ফুটপাথে পুরনো গরম কাপড়ের দোকানে উপচেপড়া ভিড় লক্ষ্য করা যায়।

সৈয়দপুর আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা লোকমান হাকিম জানান, রাত ও দিনের তাপমাত্রার পার্থক্য প্রায় অর্ধেক কমে এসেছে। তারপরও রয়েছে মৃদু শৈত্য প্রবাহ। ফলে মড়ার ওপর খাড়ার ঘায়ের অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে।

তিনি জানান, বৃহস্পতিবার সকালে মৃদু শৈত্য প্রবাহের কারণে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। ফলে সৈয়দপুর বিমানবন্দরে বিমান চলাচলে শিডিউল বিপর্যয় ঘটেছে।

লোকমান হাকিম জানান, এরপর আসতে পারে নিম্নচাপ। এ ক্ষেত্রে ডিসেম্বরের শেষ নাগাদ মাঝারী (৬ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা) ধরনের শৈত্যপ্রবাহের মধ্য দিয়ে যেতে হতে পারে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত