মৌমাছির দখলে ইউনিয়ন পরিষদের ভবন!

  নওগাঁ প্রতিনিধি ০৬ জানুয়ারি ২০২০, ১৩:৪৩ | অনলাইন সংস্করণ

মৌমাছির দখলে ইউনিয়ন পরিষদের ভবন!
নওগাঁর মান্দা উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদের ভবনে শতাধিক মৌচাক। ছবি: যুগান্তর

নওগাঁর মান্দা উপজেলায় ভারশোঁ ইউনিয়ন পরিষদের ভবনটি এখন মৌমাছির দখলে। ভবনটির কার্নিশে মৌমাছিরা প্রায় শতাধিক চাক বেঁধেছে। হঠাৎ করে ভবনটি দেখলে মনে হবে- এটা ইউনিয়ন পরিষদ না, যেন মৌমাছির আতুরঘর!

প্রকৃতিকে চলছে শীতকাল। এসময় নওগাঁয় সরিষা চাষের মৌসুম চলছে। গাছে প্রায় তিন মাস ফুল থাকে। গাছে ফুল থাকা পর্যন্ত মৌমাছি মধু আহরণ করে। ইউনিয়ন পরিষদের পাশেই প্রায় দুই কিলোমিটার বিস্তৃর্ণ এলাকাজুড়ে রয়েছে সরিষার ক্ষেত।

আশপাশে কোনো বড় গাছ না থাকায় ইউনিয়ন পরিষদের ভবনের কার্নিশে নিরাপদে মৌমাছিরা চাক বেঁধেছে। এ পরিষদ ভবনের চারপাশের কার্নিশে শতাধিক মৌচাক রয়েছে। এসব মৌমাছি সব সময় উড়ে বেড়ালেও এখন পর্যন্ত কাউকে হুল ফোটায়নি।

স্থানীয় হারুন-অর-রশীদ, হাসান আলী ও আলম জানান, গত কয়েক বছর থেকে মৌমাছিরা উপজেলা পরিষদ ভবনের কার্নিশে চাক বাঁধে। আবার সরিষার আবাদ শেষ হয়ে গেলে তারা চলে যায়।

তবে এবার ইউপি চেয়ারম্যানের উদ্যোগে মৌচাক থেকে আহরিত মধু বিক্রি করে বিভিন্ন এলাকার অসহায় ও শীতার্তদের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ করছেন।

ভারশোঁ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান সুমন বলেন, গত ৩ বছর ধরে অগ্রহায়ণ মাসে মৌমাছির দল ইউনিয়ন পরিষদের ভবনের কার্ণিশে বাসা বাঁধে। আর আষাঢ় মাসের দিকে চলে যায়। এটা আল্লাহর অশেষ নিয়ামত। আগে কখনোও মৌচাক বাসা বেঁধেছে কি-না তা আমার জানা নেই।

সরিষা ক্ষেতের পাশে মৌবাক্সের মাধ্যমে ভ্রাম্যমাণ মৌচাষিরা কৃত্রিমভাবে যে মধু সংগ্রহ করছেন তার থেকে এ মাধুর চাহিদা বেশি। প্রতি কেজি মধু ৩০০-৪০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

এখন পর্যন্ত প্রায় ১৫ হাজার টাকার মতো মধু বিক্রি করা হয়েছে। মধু বিক্রির টাকা থেকে ইউনিয়ন পরিষদের উন্নয়নমূলক কাজ এবং শীতার্তদের জন্য শীতবস্ত্র বিতরণ করা হচ্ছে।

'কোভিড-১৯' সর্বশেষ আপডেট

# আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৭০ ৩০
বিশ্ব ১১,৩০,৫৯১২,৩৫,৮৯১৬০,১৪৭
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

 
×