নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়ে পার পেলেন পাবনার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট

  পাবনা প্রতিনিধি ১৫ জানুয়ারি ২০২০, ১০:৪৪:১২ | অনলাইন সংস্করণ

ফাইল ছবি

আদালতের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন পাবনার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট জাহিদ নেওয়াজ। আদালত সেই প্রার্থনা মঞ্জুর করে তাকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেন ও ভবিষ্যতের জন্য সতর্ক করেন।

আদালত সূত্র জানায়, পাবনার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট জাহিদ নেওয়াজকে পাবনার ঈশ্বরদীর সিনিয়র সহকারী জজ আদালতের বিচারক এসএম শরীয়তউল্লাহ আদালত অবমাননার জন্য গত ১ ডিসেম্বর আদালতে তলব করেন।

চলতি বছরের ১২ জানুয়ারির মধ্যে তাকে ব্যাখ্যা দিতে নির্দেশ দেন আদালত। একই সঙ্গে আদালত থেকে আগে প্রেরিত চিঠির জবাব দিতেও জেলা প্রশাসককে নির্দেশ দেয়া হয়।

সেই আদেশের পরিপ্রেক্ষিতে পাবনার জেলা প্রশাসক ধার্য তারিখের পূর্বেই আদালতে প্রতিবেদন প্রেরণ করেন এবং অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট লিখিতভাবে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করেন।

আদালতসূত্রে জানা যায়, ঈশ্বরদী সিনিয়র সহকারী জজ আদালত থেকে গত বছরের ২৪ নভেম্বর একটি মামলায় দখল প্রদানের কাজে সহযোগিতার জন্য একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের খরচ বাবদ কত টাকা এবং কোন হিসাবে জমা দিতে হবে; তা জানতে আদালত থেকে জেলা প্রশাসককে চিঠি দেয়া হয়।

পরিপ্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসকের দফতর থেকে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাহিদ নেওয়াজ স্বাক্ষরিত একটি চিঠি আদালতে পাঠানো হয়। যেখানে আদালত থেকে যে বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়; তার জবাব না দিয়ে আদালতের চিঠির ভাষাগত ভুল উল্লেখ করে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য আদালতকে বলা হয়।

এমনকি আদালতের চিঠিকে সাধারণ দাফতরিক ভদ্রতা ও শিষ্টাচার বিবর্জিত এবং ভদ্রোচিত নয় বলে উল্লেখ করা হয়।

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের এমন আচরণে আদালত ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং আদালতের বিরুদ্ধে একজন দায়িত্বশীল সরকারি কর্মচারীর এমন ভাষা ব্যবহারকে আদালত অবমাননা হিসেবে গণ্য করেন।

এছাড়া অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের জিজ্ঞাসিত বিষয়ের জবাব না দেয়ায় মোকদ্দমা নিষ্পত্তি দেরি ও পক্ষদের ভোগান্তি হচ্ছে বলে উল্লেখ করেন।

জেলা প্রশাসকের দফতর থেকে পাঠানো চিঠির বিষয়ে ব্যাখ্যা দেয়ার জন্য আদালত পাবনার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে নির্দেশ দেন।

পরিপ্রেক্ষিতে আদালতের কাছে লিখিতভাবে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করেন পাবনার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট। আদালত ওই প্রার্থনা মঞ্জুর করেন এবং তাকে ভবিষ্যতের জন্য সতর্ক করে বিষয়টি নিষ্পত্তি করেন।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত