শেরপুরে রাস্তা ও ড্রেন সংস্কারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

  যুগান্তর ডেস্ক ১৫ জানুয়ারি ২০২০, ২১:১২ | অনলাইন সংস্করণ

সম্মেলন

বগুড়ার শেরপুর পৌরসভার ৫ ও ৮ নং ওয়ার্ডের রাস্তা ও ড্রেনের সংস্কারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উত্তরবঙ্গ সাংবাদিক সংস্থার কার্যালয়ে মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন মুন-ই-রাফি গার্ডেন সিটির মালিক আবু নাছের ইসতিয়াক জিমি।

লিখিত বক্তব্যের মাধ্যমে তিনি জানান, বগুড়া জেলার শেরপুর উপজেলার মহাসড়ক থেকে পুরনো বাঁশপট্টি হয়ে বৈকাল বাজারের বুক চিরে বয়ে যাওয়া পৌরসভায় যাওয়া রাস্তাটির বেহাল অবস্থা। রাস্তাটিতে বৃষ্টির মৌসুম ছাড়াই রাস্তার ওপর সব সময় জমে থাকে ময়লা-আবর্জনাসহ দুর্গন্ধযুক্ত পানি।

আমাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো এ রাস্তার দু-পাশে হওয়ায়, রাস্তায় জমে থাকা পচা পানির দুর্গন্ধে ব্যবসা পরিচালনা করা কঠিন হয়ে পড়েছে এবং আমরা আক্রান্ত হচ্ছি বিভিন্ন রোগ-ব্যাধিতে। তাছাড়াও দুর্গন্ধযুক্ত পচা পানি রাস্তার ওপরে জমে থাকার কারণে সাধারণ পথচারীসহ ক্রেতা সাধারণের চলাফেরার অনুপযোগী হওয়ায় আমরা ব্যাপকভাবে ব্যবসায়িক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছি।

বৃহস্পতিবার (২৯ আগস্ট) দুপুরে পৌরসভার হলরুমে ২৮ কোটি ৩৪ লাখ টাকার বাজেট পেশ করা হলেও সেই বাজেটে পৌরসভার উন্নয়নের কোনো পরিবর্তন হয়নি।

১৮৭৬ সালে প্রতিষ্ঠিত বগুড়ার শেরপুর পৌরসভাটি বতর্মানে প্রথম শ্রেণির পৌরসভা। বর্তমানে পৌরসভার রাস্তা-ঘাটসহ ড্রেনেজ ব্যবস্থার চরম বেহাল দশা। বৃষ্টি-বাদল ছাড়াই রাস্তার ওপর জমে থাকে প্রায় এক হাঁটু পর্যন্ত পানি। এমন চিত্রই ভেসে উঠেছে শেরপুর পৌরসভার মহাসড়ক থেকে পুরনো বাঁশপট্টি হয়ে বৈকাল বাজারের মধ্যে থেকে পৌরসভা বরাবর যাওয়ার রাস্তাটির।

আর এ রাস্তায়, জমে থাকা পানি শুধু পচা দুর্গন্ধই না, সঙ্গে রীতিমতো প্রস্রাবের দুর্গন্ধ ছড়ায়। রাস্তাটির এমনই বেহাল দশা যে, শুধু ঝুঁকিপূর্ণই নয়, উল্লেখিত এ স্থানটুকু পায়ে হেঁটে পারাপার হতে হিমশিম খেতে হয় বিভিন্ন স্কুল-কলেজের কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীসহ চলাচলরত সাধারণ পথযাত্রীদের।

রাস্তাটির এমন বেহাল দশা দেখে রাস্তার পাশে গড়ে ওঠা বিভিন্ন ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান মার্কেটের মালিকগণ, বিভিন্ন সময় বিভিন্নভাবে পৌরসভা কর্তৃপক্ষের নিকট অভিযোগ করলেও পৌরসভার কর্তৃপক্ষ কোনো ব্যবস্থা না নেয়ায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও মার্কেট মালিকরা এ সংবাদ সম্মেলন করেন।

এমতাবস্থায় ভুক্তভোগীরা দুর্যোগপূর্ণ সংকট হতে পৌরসভার মেয়রসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন এবং তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করে এ সমস্যা সমাধানের জোর দাবি জানান।

সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন মুন ইরাফি গার্ডেন সিটি মার্কেটের স্বত্তাধিকারী আবু নাছের ইসতিয়াক জিমি, সৈয়দা কমপ্লেক্সের স্বত্তাধিকারী মো. সেলিম, উওরা প্লাজা (বর্ধিত) মার্কেটের স্বত্তাধিকারী শহিদুল ইসলাম, উওরা প্লাজা মার্কেটের স্বত্তাধিকারী মো. নফেল, কিশোর ইন্টারপ্রাইজের মালিক শংকর বাবু, যমুনা জুয়েলারীর মালিক উত্তম ও তাসিন ইন্টারপ্রাইজের মালিক পারভেজ রহমান।

আরও উপস্থিত ছিলেন জন, প্রিন্স, সোহেল, সুমন, কাইছার, জিকু, কি নাম হোটেলের মালিক আ. হালিম, দোকান মালিক, সাংবাদিক এবং ৫ ও ৮ নং ওয়ার্ডবাসী।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

 
×