জয়পুরহাটে দিনদুপুরে বাড়িতে ঢুকে নারীকে গলাকেটে হত্যা

প্রকাশ : ১৯ জানুয়ারি ২০২০, ২২:৩৬ | অনলাইন সংস্করণ

  জয়পুরহাট প্রতিনিধি

জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলায় দিনের বেলা ঘরে ঢুকে ব্যবসায়ী স্ত্রী সপ্তমী রানী বসাককে (৫১) গলাকেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

রোববার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টার মধ্যে কোনো এক সময়ে উপজেলার রায়কালী গ্রামে নিজ বাড়িতে এ হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে।

নিহত সপ্তমী রানী বসাক রায়কালী বাজারের বিশিষ্ট কাপড় ব্যবসায়ী বিশ্বনাথ বসাকের স্ত্রী।

তবে হত্যাকাণ্ডের পর ওই বাড়ি থেকে কোনো টাকা পয়সা বা স্বর্ণালঙ্কার লুটপাট হয়নি। পূর্ব শত্রুতার জের বা ব্যবসা সংক্রান্ত আর্থিক লেনদেনকে কেন্দ্র করে এ হত্যাকাণ্ড হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, রোববার সকালে উপজেলার রায়কালী বাজারের কাপড় ব্যবসায়ী বিশ্বনাথ বসাক তার স্ত্রী সপ্তমী রানী বসাককে বাড়িতে রেখে প্রতিদিনের ন্যায় রায়কালী বাজারে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে যান। ওই সময় একটি বিয়ে অনুষ্ঠানে যোগ দিতে তার ছেলে ও পুত্রবধূ বাড়ি থেকে বের হয়ে যান।

দুপুরের খাবার খেতে আনুমানিক দুপুর ২টার দিকে ব্যবসায়ী বিশ্বনাথ বসাক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে নিজ বাড়িতে ফিরে গিয়ে দেখেন তার স্ত্রী শ্রীমতি সপ্তমী রানী বসাক রক্তাক্ত ও গলাকাটা অবস্থায় ঘরের মধ্যে পড়ে আছেন। এ সময় তার চিৎকারে প্রতিবেশী ও এলাকার লোকজন ছুটে আসেন।

খবর পেয়ে পুলিশ সদস্যসহ আক্কেলপুর থানার ওসি মো. আবু ওবায়েদ ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাশ উদ্ধার করেন।

ওসি আবু ওবায়েদ মোবাইল ফোনে যুগান্তরকে জানান, ময়নাতদন্তের জন্য নিহত সপ্তমী রানী বসাকের লাশ জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠানো  হয়েছে। তার হাতে সোনার বালা, কানে সোনার দুল এবং গলায় সোনার চেন ছিল। যা থেকে সহজেই অনুমান করা যায় যে, টাকা পয়সা বা স্বর্ণালঙ্কার লুটপাট করাই হত্যাকারীদের উদ্দেশ্য ছিল না।