ফেসবুকে হতাশার পোস্ট দিয়ে ফুলপুরে কিশোরের আত্মহত্যা
jugantor
ফেসবুকে হতাশার পোস্ট দিয়ে ফুলপুরে কিশোরের আত্মহত্যা

  ফুলপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি  

২০ জানুয়ারি ২০২০, ১৮:৫৬:৪৫  |  অনলাইন সংস্করণ

রাফাতুল আলম রাফাত
রাফাতুল আলম রাফাত। ফাইল ছবি

ময়মনসিংহের ফুলপুরে ফেসবুকে হতাশার পোস্ট দিয়ে রাফাত নামে এক কিশোর আত্মহত্যা করেছে। এ নিয়ে গত দুইদিন ধরে এলাকায় তোলপাড় চলছে।

জানা গেছে, ফুলপুর পৌরসভার আমুয়াকান্দা বাজারের রফিকুল ইসলামের ছেলে রাফাতুল আলম রাফাতের ফাঁসির ঝুলন্ত লাশ রোববার সকালে বসতঘর থেকে উদ্ধার করা হয়। তার মৃত্যুর খবরে আশপাশের লোকজনসহ ফুলপুর সরকারি পাইলট উচ্চবিদ্যালয়ের সহপাঠী ও শিক্ষক শিক্ষার্থীরা স্কুল বন্ধ রেখে লাশ দেখতে যান।

নিহতের ফেসবুক প্রোফাইলে গত ১৭ জানুয়ারি ‘কেউ একজন নাকি আমাকে ঘৃণা করে তাই মুখ দেখানো নিষেধ’ লিখে মাস্ক দিয়ে মুখ ঢেকে ছবি পোস্ট করে।

এর আগে গত ২৮ ডিসেম্বর ফাঁসির রশির ছবি দিয়ে নিজের ছবি ঢেকে এবং ১১ জানুয়ারি রাতে ফাঁসিতে ঝুলন্ত যুবকের প্রতীকী ছবি পোস্ট করে।

এ ছাড়াও তার ফেসবুক প্রোফাইলে প্রেম-বিরহ, পড়ালেখায় দুর্বলতা ও মৃত্যুকে আলিঙ্গন করার নাটকীয় সংলাপসহ নানা ধরনের হতাশাজনক পোস্ট পাওয়া গেছে।

রাফাত ফুলপুর সরকারি পাইলট উচ্চবিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র ছিল। টেস্ট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ না হওয়ায় এসএসসি ফরম পূরণ করতে পারেনি।

পরিবারের লোকজন জানান, রাফাত মেধাবী ছাত্র ছিল। টেস্ট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ না হওয়ার পর থেকেই সে হতাশায় ভুগছিল।

ফুলপুর থানার ওসি ইমারত হোসেন গাজী জানান, প্রাথমিকভাবে পরীক্ষায় ফেল করায় আত্মহত্যা করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। অন্যান্য বিষয় নিয়েও তদন্ত চলছে।

ফেসবুকে হতাশার পোস্ট দিয়ে ফুলপুরে কিশোরের আত্মহত্যা

 ফুলপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি 
২০ জানুয়ারি ২০২০, ০৬:৫৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
রাফাতুল আলম রাফাত
রাফাতুল আলম রাফাত। ফাইল ছবি

ময়মনসিংহের ফুলপুরে ফেসবুকে হতাশার পোস্ট দিয়ে রাফাত নামে এক কিশোর আত্মহত্যা করেছে। এ নিয়ে গত দুইদিন ধরে এলাকায় তোলপাড় চলছে।

জানা গেছে, ফুলপুর পৌরসভার আমুয়াকান্দা বাজারের রফিকুল ইসলামের ছেলে রাফাতুল আলম রাফাতের ফাঁসির ঝুলন্ত লাশ রোববার সকালে বসতঘর থেকে উদ্ধার করা হয়। তার মৃত্যুর খবরে আশপাশের লোকজনসহ ফুলপুর সরকারি পাইলট উচ্চবিদ্যালয়ের সহপাঠী ও শিক্ষক শিক্ষার্থীরা স্কুল বন্ধ রেখে লাশ দেখতে যান।

নিহতের ফেসবুক প্রোফাইলে গত ১৭ জানুয়ারি ‘কেউ একজন নাকি আমাকে ঘৃণা করে তাই মুখ দেখানো নিষেধ’ লিখে মাস্ক দিয়ে মুখ ঢেকে ছবি পোস্ট করে।

এর আগে গত ২৮ ডিসেম্বর ফাঁসির রশির ছবি দিয়ে নিজের ছবি ঢেকে এবং ১১ জানুয়ারি রাতে ফাঁসিতে ঝুলন্ত যুবকের প্রতীকী ছবি পোস্ট করে।

এ ছাড়াও তার ফেসবুক প্রোফাইলে প্রেম-বিরহ, পড়ালেখায় দুর্বলতা ও মৃত্যুকে আলিঙ্গন করার নাটকীয় সংলাপসহ নানা ধরনের হতাশাজনক পোস্ট পাওয়া গেছে।

রাফাত ফুলপুর সরকারি পাইলট উচ্চবিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র ছিল। টেস্ট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ না হওয়ায় এসএসসি ফরম পূরণ করতে পারেনি।

পরিবারের লোকজন জানান, রাফাত মেধাবী ছাত্র ছিল। টেস্ট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ না হওয়ার পর থেকেই সে হতাশায় ভুগছিল।

ফুলপুর থানার ওসি ইমারত হোসেন গাজী জানান, প্রাথমিকভাবে পরীক্ষায় ফেল করায় আত্মহত্যা করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। অন্যান্য বিষয় নিয়েও তদন্ত চলছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন