স্কুল যেন জনআপদ তৈরির কারখানা না হয়: দুদক চেয়ারম্যান
jugantor
স্কুল যেন জনআপদ তৈরির কারখানা না হয়: দুদক চেয়ারম্যান

  সাতক্ষীরা প্রতিনিধি  

২৩ জানুয়ারি ২০২০, ১৮:৪৫:৩০  |  অনলাইন সংস্করণ

সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে দুর্নীতি প্রতিরোধ বিষয়ক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ

দুর্নীতি দমন কমিশনের(দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, যে ছেলে স্কুল ও কলেজ থেকে পাস করে বের হচ্ছে সে যেন জনসম্পদের বদলে জন আপদে পরিণত না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। স্কুল যেন জনআপদ তৈরির কারখানা না হয়।

বৃহস্পতিবার সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে দুর্নীতি প্রতিরোধ বিষয়ক এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সরকারি কর্মকর্তাদের উদ্দেশে দুদক চেয়ারম্যান বলেন,আপনরা আপনাদের বিবেক ও বুদ্ধি বিবেচনা মতো কাজ করুন। দুদক না দেখে কোনো মামলা করে না।

দেশে ইয়াবা ও ফেনসিডিল পাচার হয়ে আসে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের সবাইকে সম্পৃক্ত হতে হবে। তা না হলে আমাদের সন্তানরা লেখাপড়া করবে না।

তিনি বলেন, ‘অনেকে বলেন টাকা হলে পাওয়ার বাড়ে, কিন্তু আমরা প্রমাণ করেছি টাকা হলে পাওয়ার বাড়ে না। সমাজে কারা দুর্নীতি করছে তা কৃষি প্রদর্শনী প্লটের মতো আমরা দেখিয়ে দেব।

ব্যাংক, বিকাশ এবং অনলাইন ব্যাংকিংয়ের উল্লেখ করে ইকবাল মাহমুদ বলেন, আমরা অবৈধ টাকা প্রেরণ বন্ধ করব।

চাপ ছাড়া যে কাজ হয় সেটা এবার পুলিশ নিয়োগে আপনারা দেখেছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, শিক্ষক নিয়োগে কোনো চাপ প্রয়োগ করা চলবে না। জেলা প্রশাসক-এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেন।

‘আমরা কেবল চুনোপুঁটি ধরি’ এমন সমালোচনার জবাবে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, গ্রামের মানুষের কাছে তহসিলদারদের মতো চুনোপুঁটিরা অনেক পাওয়ারফুল। যে কাজ জেলা প্রশাসক পারেন না, যে কাজ পুলিশ সুপার পারেন না, সে কাজ থানার একজন এএসআই করে দিতে পারেন। আমরা গ্রামের ৮০ শতাংশ মানুষের দিকে চেয়ে আছি। দুর্নীতিবাজদের আমরা জনসমক্ষে বের করে আনতে চাই।

সরকারি কর্মকর্তাসহ অন্যরা সহযোগিতা না করলে তা করা কঠিন হয়ে পড়বে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় আরও বক্তব্য রাখেন খুলনা বিভাগীয় কমিশনার ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার।

এ সময় জেলার সরকারি কর্মকর্তা ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

স্কুল যেন জনআপদ তৈরির কারখানা না হয়: দুদক চেয়ারম্যান

 সাতক্ষীরা প্রতিনিধি 
২৩ জানুয়ারি ২০২০, ০৬:৪৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে দুর্নীতি প্রতিরোধ বিষয়ক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ
সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে দুর্নীতি প্রতিরোধ বিষয়ক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, যে ছেলে স্কুল ও কলেজ থেকে পাস করে বের হচ্ছে সে যেন জনসম্পদের বদলে জন আপদে পরিণত না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। স্কুল যেন জনআপদ তৈরির কারখানা না হয়।

বৃহস্পতিবার সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে দুর্নীতি প্রতিরোধ বিষয়ক এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সরকারি কর্মকর্তাদের উদ্দেশে দুদক চেয়ারম্যান বলেন,আপনরা আপনাদের বিবেক ও বুদ্ধি বিবেচনা মতো কাজ করুন। দুদক না দেখে কোনো মামলা করে না।

দেশে ইয়াবা ও ফেনসিডিল পাচার হয়ে আসে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের সবাইকে সম্পৃক্ত হতে হবে। তা না হলে আমাদের সন্তানরা লেখাপড়া করবে না।

তিনি বলেন, ‘অনেকে বলেন টাকা হলে পাওয়ার বাড়ে, কিন্তু আমরা প্রমাণ করেছি টাকা হলে পাওয়ার বাড়ে না। সমাজে কারা দুর্নীতি করছে তা কৃষি প্রদর্শনী প্লটের মতো আমরা দেখিয়ে দেব।

ব্যাংক, বিকাশ এবং অনলাইন ব্যাংকিংয়ের উল্লেখ করে ইকবাল মাহমুদ বলেন, আমরা অবৈধ টাকা প্রেরণ বন্ধ করব।

চাপ ছাড়া যে কাজ হয় সেটা এবার পুলিশ নিয়োগে আপনারা দেখেছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, শিক্ষক নিয়োগে কোনো চাপ প্রয়োগ করা চলবে না। জেলা প্রশাসক-এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেন।

‘আমরা কেবল চুনোপুঁটি ধরি’ এমন সমালোচনার জবাবে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, গ্রামের মানুষের কাছে তহসিলদারদের মতো চুনোপুঁটিরা অনেক পাওয়ারফুল। যে কাজ জেলা প্রশাসক পারেন না, যে কাজ পুলিশ সুপার পারেন না, সে কাজ থানার একজন এএসআই করে দিতে পারেন। আমরা গ্রামের ৮০ শতাংশ মানুষের দিকে চেয়ে আছি। দুর্নীতিবাজদের আমরা জনসমক্ষে বের করে আনতে চাই।

সরকারি কর্মকর্তাসহ অন্যরা সহযোগিতা না করলে তা করা কঠিন হয়ে পড়বে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় আরও বক্তব্য রাখেন খুলনা বিভাগীয় কমিশনার ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার।

এ সময় জেলার সরকারি কর্মকর্তা ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন