বেরোবি ছাত্রলীগ নেতার মামলায় অপর নেতা কারাগারে
jugantor
বেরোবি ছাত্রলীগ নেতার মামলায় অপর নেতা কারাগারে

  বেরোবি প্রতিনিধি  

২৩ জানুয়ারি ২০২০, ২১:৩১:৪৫  |  অনলাইন সংস্করণ

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) শাখা ছাত্রলীগের একাংশের এক নেতার হত্যাচেষ্টা মামলার প্রধান আসামি অপরপক্ষের এক নেতাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

শাখা ছাত্রলীগের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের বিগত কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক প্রিতম আগারওয়ালের করা মামলায় আরেক সহ-সম্পাদক ফজলে রাব্বী জামিন নিতে গেলে আদালত তার আবেদন না-মঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সহিবুর রহমান এ নির্দেশ দেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২নং গেটের সামনে ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী ফজলে রাব্বি, ইংরেজি বিভাগের ২০১১-১২ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী মাহমুদুল ইসলাম জয়, ইতিহাস বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী আব্দুর রহমান জিসান এবং ফাইন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী সোহেল সিদ্দিকিসহ অজ্ঞাতনামা ৪-৫ জন লাঠি, রামদা ও অন্যান্য দেশীয় অস্ত্রসহ অতর্কিতভাবে প্রিতমের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়।

ওই বছরের ৬ মার্চ প্রিতম রংপুরের কোতোয়ালি থানায় ফজলে রাব্বীকে প্রধান আসামি এবং মাহমুদুল ইসলাম জয়, আবদুর রহমান জিসান এবং সোহেল সিদ্দিকীসহ অজ্ঞাতনামা ৪-৫ জনকে আসামি করে একটি হত্যাচেষ্টা মামলা দায়ের করেন।

আসামিদের মধ্যে মাহমুদুল ইসলাম জয় শাখা ছাত্রলীগের বিগত কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাংবাদিক হত্যাচেষ্টাসহ ৪টি মামলার চার্জশিটভুক্ত আসামি।

মাহমুদুল ইসলাম জয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মুখতার ইলাহী হলের ৫০৯ নং কক্ষে টর্চার সেল বানিয়ে শিক্ষার্থীদের নির্যাতন করেন বলে অভিযোগ রয়েছে। এ ছাড়াও মাহমুদুল ইসলাম জয় বিশ্ববিদ্যালয়ে বহিরাগতদের নিয়ে মাদক সেবন করেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

এ দিকে ফজলে রাব্বি এবং আবদুর রহমান জিসান বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মুখতার ইলাহী হলের একটি কক্ষের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাঙচুর মামলার আসামি।

বেরোবি ছাত্রলীগ নেতার মামলায় অপর নেতা কারাগারে

 বেরোবি প্রতিনিধি 
২৩ জানুয়ারি ২০২০, ০৯:৩১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) শাখা ছাত্রলীগের একাংশের এক নেতার হত্যাচেষ্টা মামলার প্রধান আসামি অপরপক্ষের এক নেতাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

শাখা ছাত্রলীগের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের বিগত কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক প্রিতম আগারওয়ালের করা মামলায় আরেক সহ-সম্পাদক ফজলে রাব্বী জামিন নিতে গেলে আদালত তার আবেদন না-মঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সহিবুর রহমান এ নির্দেশ দেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ২নং গেটের সামনে ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী ফজলে রাব্বি, ইংরেজি বিভাগের ২০১১-১২ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী মাহমুদুল ইসলাম জয়, ইতিহাস বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী আব্দুর রহমান জিসান এবং ফাইন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী সোহেল সিদ্দিকিসহ অজ্ঞাতনামা ৪-৫ জন লাঠি, রামদা ও অন্যান্য দেশীয় অস্ত্রসহ অতর্কিতভাবে প্রিতমের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়।

ওই বছরের ৬ মার্চ প্রিতম রংপুরের কোতোয়ালি থানায় ফজলে রাব্বীকে প্রধান আসামি এবং মাহমুদুল ইসলাম জয়, আবদুর রহমান জিসান এবং সোহেল সিদ্দিকীসহ অজ্ঞাতনামা ৪-৫ জনকে আসামি করে একটি হত্যাচেষ্টা মামলা দায়ের করেন।

আসামিদের মধ্যে মাহমুদুল ইসলাম জয় শাখা ছাত্রলীগের বিগত কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাংবাদিক হত্যাচেষ্টাসহ ৪টি মামলার চার্জশিটভুক্ত আসামি।

মাহমুদুল ইসলাম জয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মুখতার ইলাহী হলের ৫০৯ নং কক্ষে টর্চার সেল বানিয়ে শিক্ষার্থীদের নির্যাতন করেন বলে অভিযোগ রয়েছে। এ ছাড়াও মাহমুদুল ইসলাম জয় বিশ্ববিদ্যালয়ে বহিরাগতদের নিয়ে মাদক সেবন করেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

এ দিকে ফজলে রাব্বি এবং আবদুর রহমান জিসান বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মুখতার ইলাহী হলের একটি কক্ষের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ভাঙচুর মামলার আসামি।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন