তিনদিন পর বাংলাদেশকে ২ লাশ ফেরত দিল বিএসএফ

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি ২০২০, ২১:৪৪ | অনলাইন সংস্করণ

  নওগাঁ প্রতিনিধি

সীমান্তে বিএসএফের পাহাড়া। ফাইল ছবি

নওগাঁর পোরশা উপজেলার দুয়ারপাল সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) ছোঁড়া গুলিতে নিহত দুই বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ীর লাশ তিনদিন পর ফেরত দিল বিএসএফ। 

শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) কাছে নিহত রনজিত কুমার (২৪) ও কামাল আহমেদ (৩২) নামের দুই ব্যক্তির লাশ ফেরত দেয়া হয়। 

নিহতরা হলেন- পোরশা উপজেলার নিতপুর ইউনিয়নের কাঁটাপুকুরের মৃত জিল্লুর রহমানের ছেলে কামাল আহমেদ এবং বিষ্ণপুর বিজলীপাড়ার শুকরার ছেলে রনজিত কুমার। লাশ দুটি বিজিবি পোরশা থানার পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে।

বিজিবি ও স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গত বুধবার রাতে মফিজুল ইসলাম, কামাল হোসেন ও রনজিত কুমারসহ ১০-১২ জনের একটি দল পোরশা দুয়ারপাল সীমান্ত এলাকার ২৩১/১০ (এস) মেইন পিলারের নীলমারী বিল দিয়ে ভারতের অভ্যন্তরে অবৈধভাবে গরু আনতে প্রবেশ করে। তারা গরু নিয়ে বাংলাদেশে ফেরার পথে বৃহস্পতিবার ভোর রাতে ভারতের ক্যাদারীপাড়া ক্যাম্পের বিএসএফ জোয়ানরা গরু ব্যবসায়ীদের লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়েন। 

এ সময় অন্যরা পালিয়ে আসতে সক্ষম হলেও তিন গরু ব্যবসায়ী গুলিবিদ্ধ হয়। এতে গরু ব্যবসায়ী মফিজুল ইসলাম গুলিবিদ্ধ হয়ে বাংলাদেশের ২শ’ গজ অভ্যন্তরে তার লাশ পড়ে ছিল। আর গরু ব্যবসায়ী রনজিত কুমার ও কামাল আহমেদের লাশ ভারতের ৮শ’ গজ অভ্যন্তরে পড়ে ছিল। পরে দুপুর দেড়টার দিকে লাশ দুটি বিএসএফের সদস্যরা নিয়ে যান।

এ নিয়ে ঘটনার দিন বিকাল ৫টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত দুয়ারপাল সীমান্তের শূন্যরেখায় দুই দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর মধ্যে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিএসএফের পক্ষ থেকে তিন বাংলাদেশিকে হত্যার কথা স্বীকার করা হয়।  এছাড়া এমন ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করে তারা। বৈঠকে দুইজনের লাশ আইনি প্রক্রিয়া শেষে ফেরত দেয়ার অঙ্গীকার করে বিএসএফ সদস্যরা। আজ (শনিবার) তিনদিন পর বিএসএফ দুই বাংলাদেশির লাশ ফেরত দেয়।

পোরশা থানার ওসি শাহিনুর ইসলাম বলেন, বিজিবি থেকে লাশ দুটি থানায় হস্তান্তর করা হয়। লাশ দুটি নিহত ব্যক্তিদের পরিবারের কাছে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে।