প্রযুক্তি যেন আমাদের ব্যবহার না করতে পারে: জাফর ইকবাল
jugantor
প্রযুক্তি যেন আমাদের ব্যবহার না করতে পারে: জাফর ইকবাল

  ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি  

০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২৩:১৬:১১  |  অনলাইন সংস্করণ

শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন  অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন প্রযুক্তিবিদ ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল

আমরা প্রযুক্তিকে ব্যবহার করবো প্রযুক্তি যেন আমাদের ব্যবহার না করতে পারে। তাই শিক্ষার্থীদের স্মার্ট ফোনের অতি ব্যবহার থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান প্রযুক্তিবিদ ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল।

নবীন শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, তোমরা কী জানো তোমাদের জীবনের সব থেকে ভালো সময়টা আজ থেকে শুরু হল। আজ থেকে তোমরা স্বাধীন। তোমরা নিজেদের মতো পড়তে পারবে, এই সুন্দর ক্যাম্পাসে ঘুরতে পারবে, নাটক করতে পারবে।

সোমবার সকালে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও কথা সাহিত্যিক অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল এসব কথাগুলো বলেন।

নিজের ছাত্রজীবনের কথা স্মরণ করে তিনি বলেন, আমার জীবনের সব থেকে সুন্দর সময়টা ছিল যখন আমি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করতাম। এটা সেই জায়গা যেখানে বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলাম হেঁটে গিয়েছেন। আমি মঞ্চ থেকে দেখে ভাবছিলাম কাজী নজরুল ইসলাম নিজেই হয়ত এই পথে দিয়ে হেঁটে গেছেন। আমি এখন সে পথ দিয়ে হাঁটছি। ভাবতে পারো এটা কত বড় সৌভাগ্য।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘গাহি সাম্যের গান’ মঞ্চে আয়োজিত ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. জালাল উদ্দিন, ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. সুব্রত কুমার দে, কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. সাহাবউদ্দিন, অর্থনীতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. মো. নজরুল ইসলাম, পরিচালক (ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা) ড. মো. সুজন আলী, কর্মকর্তা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জাকিবুল হাসান।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) কৃষিবিদ ড. মো. হুমায়ুন কবীর। উপস্থাপনা করেন থিয়েটার এন্ড পারফরম্যান্স স্টাডিজ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মাজহারুল হোসেন তোকদার ও স্থানীয় সরকার ও নগর উন্নয়ন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক তানিয়া আফরিন ত্বন্নী।

নবীন শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, বিশাল ভর্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে আপনারা এখানে ভর্তি হতে পেরেছেন। আপনারা মহান প্রতিষ্ঠান জাতীয় কবি নজরুল ইসলামের নামে প্রতিষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। আমি আপনাদের অভিনন্দন জানাই।

তিনি আরও বলেন, আজকে থেকে এই সুন্দর পৃথিবীর একজন ভিন্ন মানুষ আপনারা হয়ে গেলেন। যে মানুষটি এই পৃথিবীর অন্যান্য মানুষের থেকে পৃথক। কারণ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সৌভাগ্য সবার হয় না।

উপাচার্য নবীন শিক্ষার্থীদের জন্য একটি নতুন বাসের চাবি পরিবহন প্রশাসক এমদাদুর রাশেদের নিকট হস্তান্তর করেন।

দ্বিতীয় পর্বে পরিবেশিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

প্রযুক্তি যেন আমাদের ব্যবহার না করতে পারে: জাফর ইকবাল

 ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি 
০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১১:১৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন  অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন প্রযুক্তিবিদ ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল
শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন প্রযুক্তিবিদ ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল

আমরা প্রযুক্তিকে ব্যবহার করবো প্রযুক্তি যেন আমাদের ব্যবহার না করতে পারে। তাই শিক্ষার্থীদের স্মার্ট ফোনের অতি ব্যবহার থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান প্রযুক্তিবিদ ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল।

নবীন শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, তোমরা কী জানো তোমাদের জীবনের সব থেকে ভালো সময়টা আজ থেকে শুরু হল। আজ থেকে তোমরা স্বাধীন। তোমরা নিজেদের মতো পড়তে পারবে, এই সুন্দর ক্যাম্পাসে ঘুরতে পারবে, নাটক করতে পারবে।

সোমবার সকালে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন  অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও কথা সাহিত্যিক অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল এসব কথাগুলো বলেন।

নিজের ছাত্রজীবনের কথা স্মরণ করে তিনি বলেন, আমার জীবনের সব থেকে সুন্দর সময়টা ছিল যখন আমি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করতাম। এটা সেই জায়গা যেখানে বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলাম হেঁটে গিয়েছেন। আমি মঞ্চ থেকে দেখে ভাবছিলাম কাজী নজরুল ইসলাম নিজেই হয়ত এই পথে দিয়ে হেঁটে  গেছেন। আমি এখন সে পথ দিয়ে হাঁটছি। ভাবতে পারো এটা কত বড় সৌভাগ্য।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘গাহি সাম্যের গান’ মঞ্চে আয়োজিত ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. জালাল উদ্দিন, ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. সুব্রত কুমার দে, কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো. সাহাবউদ্দিন, অর্থনীতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. মো. নজরুল ইসলাম, পরিচালক (ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা) ড. মো. সুজন আলী, কর্মকর্তা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জাকিবুল হাসান।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) কৃষিবিদ ড. মো. হুমায়ুন কবীর। উপস্থাপনা করেন থিয়েটার এন্ড পারফরম্যান্স স্টাডিজ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মাজহারুল হোসেন তোকদার ও স্থানীয় সরকার ও নগর উন্নয়ন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক তানিয়া আফরিন ত্বন্নী।

নবীন শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, বিশাল ভর্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে আপনারা এখানে ভর্তি হতে পেরেছেন। আপনারা মহান প্রতিষ্ঠান জাতীয় কবি নজরুল ইসলামের নামে প্রতিষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। আমি আপনাদের অভিনন্দন জানাই।

তিনি আরও বলেন, আজকে থেকে এই সুন্দর পৃথিবীর একজন ভিন্ন মানুষ আপনারা হয়ে গেলেন। যে মানুষটি এই পৃথিবীর অন্যান্য মানুষের থেকে পৃথক। কারণ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সৌভাগ্য সবার হয় না।

উপাচার্য নবীন শিক্ষার্থীদের জন্য একটি নতুন বাসের চাবি পরিবহন প্রশাসক এমদাদুর রাশেদের নিকট হস্তান্তর করেন।

দ্বিতীয় পর্বে পরিবেশিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন