ফরিদপুরে মায়ের পরীক্ষা দিতে এসে ধরা খেল মেয়ে
jugantor
ফরিদপুরে মায়ের পরীক্ষা দিতে এসে ধরা খেল মেয়ে

  ফরিদপুর ব্যুরো  

০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৭:৫২:২৫  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়

ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার চতুল উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষায় মায়ের পরিবর্তে মেয়ে, বোনের পরিবর্তে বোন ও ভাইয়ের পরিবর্তে ভাই প্রক্সি দিতে আসা আটজন ধরা পড়েছে।

শুক্রবার বিকালে নিজ কার্যালয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে আটক আটজনকে ১ লাখ ৬৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার ঝোটন চন্দ আদালত পরিচালনা করেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার চতুল উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির প্রথম পর্বের গণিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছিল।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ঝোটন চন্দ বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে ওই আটজনকে আটক করে। পরে পাবলিক পরীক্ষাসমূহ (অপরাধ) আইন ১৯৮০-এর ১১ ধারা অনুযায়ী এ জরিমানা করেন।

যাদের জরিমানা করা হয়, তারা হলেন- মায়ের পরীক্ষা দিতে আসা সুবর্ণাকে ২০ হাজার, বোনের পরীক্ষা দিতে আসা লিমাকে ২০ হাজার এবং ভাইয়ের পরীক্ষা দিতে আসা ফয়সাল শেখকে ১৫ হাজার, শুভ সরকারকে ২৫ হাজার, রাজিব খানকে ২৫ হাজার, নাইম শেখকে ২৫ হাজার, বাবর আলীকে ২৫ হাজার, সোহাগ কীর্ত্তনিয়াকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। ওই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ঝোটন চন্দ।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ঝোটন চন্দ বলেন, পাবলিক পরীক্ষাসমূহ (অপরাধ) আইন ১৯৮০-এর ১১ ধারা অনুযায়ী আটজনকে জরিমানা করা হয়েছে।

ফরিদপুরে মায়ের পরীক্ষা দিতে এসে ধরা খেল মেয়ে

 ফরিদপুর ব্যুরো 
০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৫:৫২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়
বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়। ছবি: সংগৃহীত

ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার চতুল উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষায় মায়ের পরিবর্তে মেয়ে, বোনের পরিবর্তে বোন ও ভাইয়ের পরিবর্তে ভাই প্রক্সি দিতে আসা আটজন ধরা পড়েছে। 

শুক্রবার বিকালে নিজ কার্যালয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে আটক আটজনকে ১ লাখ ৬৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার ঝোটন চন্দ আদালত পরিচালনা করেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার চতুল উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির প্রথম পর্বের গণিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছিল। 

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ঝোটন চন্দ বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে ওই আটজনকে আটক করে। পরে পাবলিক পরীক্ষাসমূহ (অপরাধ) আইন ১৯৮০-এর ১১ ধারা অনুযায়ী এ জরিমানা করেন।

যাদের জরিমানা করা হয়, তারা হলেন- মায়ের পরীক্ষা দিতে আসা সুবর্ণাকে ২০ হাজার, বোনের পরীক্ষা দিতে আসা লিমাকে ২০ হাজার এবং ভাইয়ের পরীক্ষা দিতে আসা ফয়সাল শেখকে ১৫ হাজার, শুভ সরকারকে ২৫ হাজার, রাজিব খানকে ২৫ হাজার, নাইম শেখকে ২৫ হাজার, বাবর আলীকে ২৫ হাজার, সোহাগ কীর্ত্তনিয়াকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। ওই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ঝোটন চন্দ।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ঝোটন চন্দ বলেন, পাবলিক পরীক্ষাসমূহ (অপরাধ) আইন ১৯৮০-এর ১১ ধারা অনুযায়ী আটজনকে জরিমানা করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন