৯৯৯-এ ফোন দিয়ে ডাকাতি থেকে রেহাই পেল বাসযাত্রীরা
jugantor
৯৯৯-এ ফোন দিয়ে ডাকাতি থেকে রেহাই পেল বাসযাত্রীরা

  যুগান্তর ডেস্ক  

১০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৮:১০:৫৩  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেটের দক্ষিণ সুরমায় ডাকাতদের কবলে পড়া একটি বাসের যাত্রীরা ৯৯৯-এ কল দিয়ে রেহাই পেয়েছেন। তবে ডাকাতদের ঢিলের আঘাতে বাসচালক জখম হয়েছেন।

সোমবার ভোররাতে দক্ষিণ সুরমার সুনামগঞ্জ বাইপাস সড়কে এ ঘটনা ঘটে বলে ৯৯৯ মিডিয়া সেল থেকে জানানো হয়েছে।

বাসের যাত্রীরা জানান, সোমবার ভোররাত পৌনে ৪টার দিকে ঢাকা থেকে আসা সুনামগঞ্জগামী একটি বাস দক্ষিণ সুরমার সুনামগঞ্জ বাইপাস সড়কের লতিপুর এলাকার রেলক্রসিংয়ে পৌঁছলে মুখোশধারী ২০-২৫ জনের একটি ডাকাতদল গাছ ফেলে বাসের গতিরোধ করে। তাদের হাতে ছিল দা, রাম-দা, রড ও বন্দুক।

ডাকাতরা এর আগে ৪/৫টি ট্রাক আটকে ট্রাকগুলো এলোপাথাড়ি করে রেখে যানজটের সৃষ্টি করে। পরে ডাকাতদল সুনামগঞ্জগামী ওই বাসে উঠার চেষ্টা করলে সতর্ক চালক ব্যাক গিয়ার দিয়ে গাড়ি পেছনে নিয়ে যেতে থাকেন। ডাকাতদল গাড়িতে উঠতে ব্যর্থ হয়ে গাড়ির গ্লাসে পাথর দিয়ে সজোরে ঢিল ছুড়তে থাকে এবং রড-দা দিয়ে গাড়ির গ্লাস ভাঙতে থাকে।

এ সময় গাড়ির চালক আহত হন এবং গাড়ির ভেতরের যাত্রীদের মধ্যে চরম আতঙ্ক দেখা দেয়। বাসের যাত্রীরা এ সময় চিৎকার ও কান্নাকাটি শুরু করে দেন।

গাড়ির মধ্যে থাকা আবু তাসফি নামের এক যাত্রী এ সময় বুদ্ধি করে ৯৯৯-এ কল দিলে দক্ষিণ সুরমার থানা ফাঁড়ির একদল পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতদল পালিয়ে যায়।

পরে ওই বাসের যাত্রী কালিঘাটের ব্যবসায়ী আবু তাসফি বলেন, ডাকাতদল হানা দেয়ার পর গাড়ির ভেতরে যে অবস্থার সৃষ্টি হয়েছিল তা সত্যি ভয়াবহ। একদিকে ডাকাতরা গাড়ির গ্লাস ভাঙছে অন্যদিকে যাত্রীরা সৃষ্টিকর্তাকে ডাকছে, কান্নাকাটি আর চিৎকার করছে। পরে আল্লাহর রহমতে পুলিশ দ্রুত চলে আসলে আমরা রেহাই পাই।

৯৯৯-এ ফোন দিয়ে ডাকাতি থেকে রেহাই পেল বাসযাত্রীরা

 যুগান্তর ডেস্ক 
১০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৬:১০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেটের দক্ষিণ সুরমায় ডাকাতদের কবলে পড়া একটি বাসের যাত্রীরা ৯৯৯-এ কল দিয়ে রেহাই পেয়েছেন। তবে ডাকাতদের ঢিলের আঘাতে বাসচালক জখম হয়েছেন।

সোমবার ভোররাতে দক্ষিণ সুরমার সুনামগঞ্জ বাইপাস সড়কে এ ঘটনা ঘটে বলে ৯৯৯ মিডিয়া সেল থেকে জানানো হয়েছে।

বাসের যাত্রীরা জানান, সোমবার ভোররাত পৌনে ৪টার দিকে ঢাকা থেকে আসা সুনামগঞ্জগামী একটি বাস দক্ষিণ সুরমার সুনামগঞ্জ বাইপাস সড়কের লতিপুর এলাকার রেলক্রসিংয়ে পৌঁছলে মুখোশধারী ২০-২৫ জনের একটি ডাকাতদল গাছ ফেলে বাসের গতিরোধ করে। তাদের হাতে ছিল দা, রাম-দা, রড ও বন্দুক।

ডাকাতরা এর আগে ৪/৫টি ট্রাক আটকে ট্রাকগুলো এলোপাথাড়ি করে রেখে যানজটের সৃষ্টি করে। পরে ডাকাতদল সুনামগঞ্জগামী ওই বাসে উঠার চেষ্টা করলে সতর্ক চালক ব্যাক গিয়ার দিয়ে গাড়ি পেছনে নিয়ে যেতে থাকেন। ডাকাতদল গাড়িতে উঠতে ব্যর্থ হয়ে গাড়ির গ্লাসে পাথর দিয়ে সজোরে ঢিল ছুড়তে থাকে এবং রড-দা দিয়ে গাড়ির গ্লাস ভাঙতে থাকে।

এ সময় গাড়ির চালক আহত হন এবং গাড়ির ভেতরের যাত্রীদের মধ্যে চরম আতঙ্ক দেখা দেয়। বাসের যাত্রীরা এ সময় চিৎকার ও কান্নাকাটি শুরু করে দেন।

গাড়ির মধ্যে থাকা আবু তাসফি নামের এক যাত্রী এ সময় বুদ্ধি করে ৯৯৯-এ কল দিলে দক্ষিণ সুরমার থানা ফাঁড়ির একদল পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতদল পালিয়ে যায়।

পরে ওই বাসের যাত্রী কালিঘাটের ব্যবসায়ী আবু তাসফি বলেন, ডাকাতদল হানা দেয়ার পর গাড়ির ভেতরে যে অবস্থার সৃষ্টি হয়েছিল তা সত্যি ভয়াবহ। একদিকে ডাকাতরা গাড়ির গ্লাস ভাঙছে অন্যদিকে যাত্রীরা সৃষ্টিকর্তাকে ডাকছে, কান্নাকাটি আর চিৎকার করছে। পরে আল্লাহর রহমতে পুলিশ দ্রুত চলে আসলে আমরা রেহাই পাই।